Share |

বিয়ানীবাজরে ছাত্রলীগের গুলি, নিহত ১

ঢাকা, ১৭ জুলাই : খালেদ আহমদ লিটুআধিপত্য বিস্তার নিয়ে সিলেটের বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে ছাত্রলীগের দুই পক্ষের সংঘর্ষে গুলিতে একজন নিহত হয়েছেন। সোমবার দুপুরে ছাত্রলীগের ‘পল্লব গ্রুপ’ ও ‘পাভেল গ্রুপ’এর মধ্যে এ সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। নিহত ব্যক্তির নাম খালেদ আহমদ লিটু (২৩)। তিনি ছাত্রলীগের কর্মী ছিলেন বলে জানা গেছে।
বেলা পৌনে দুইটার দিকে যোগাযোগ করলে সিলেটের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সুজ্ঞান চাকমা গুলিতে নিহত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, কলেজে দুই পক্ষের সংঘর্ষ চলাকালে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ বিষয়টি তদন্ত করছে। পুলিশ খালেদের মরদেহ উদ্ধার করে বিয়ানীবাজার উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক মাসুম আহমদ জানান, মাথায় গুলি লাগায় অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।
বিয়ানীবাজারে প্রায় ১২ বছর ধরে ছাত্রলীগের কোনো কমিটি নেই। তবে কমিটি না থাকলেও ছাত্রলীগের অন্তত ১২টি পক্ষ সক্রিয় রয়েছে। বিয়ানীবাজার সরকারি কলেজে আধিপত্য বিস্তার করতে ছাত্রলীগের বিভিন্ন পক্ষে সক্রিয়তা দেখা যায়। সম্প্রতি কমিটি গঠনের তোড়জোড় চলায় প্রভাবশালী দুটি পক্ষ কলেজ ক্যাম্পাসে গেলে এ ঘটনা ঘটে। তবে খালেদ ওই কলেজের ছাত্র নন বলে কলেজ সূত্র নিশ্চিত করেছে।  যোগাযোগ করলে কমিটি না থাকার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি শাহরিয়ার আলম। তবে, ঘটনাটি কারা ও কেন ঘটিয়েছে, তা খোঁজ নেওয়া হচ্ছে।