Share |

ব্রিটিশ হলেও ইইউ অধিকার বহাল থাকবে

পত্রিকা রিপোর্ট
লন্ডন, ২০ নভেম্বর : ব্রিটেনের স্পাউস ভিসা নিয়ে যুগান্তকারী এক রায় দিয়েছে ইউরোপিয়ান কোর্ট অব হিউম্যান রাইটস।  এই আদালত বলেছে, কোনো ইইউ নাগরিক ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নিলেও তাদের ইইউ রাইটস বহাল থাকবে। এর ফলে স্পাউস ভিসার ক্ষেত্রে বার্ষিক আয়ের যে বাধ্যবাধকতা রয়েছে, সেটি ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নেয়া ইইউভুক্ত দেশগুলোর নাগরিকদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য হবে না।  গত ১৪ নভেম্বর মঙ্গলবার এক মামলার রায়ে এমন নির্দেশনা দেয় ইইউ আদালত।  
কোনো ব্রিটিশ নাগরিক ইউরোপিয় ইউনিয়নের বাইরের কোনো দেশ থেকে স্পাউস (স্বামী বা স্ত্রী) আনতে হলে বছরে ১৮ হাজার ৬শ পাউন্ড আয় থাকতে হয়। কিন্তু যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ইইউ নাগরিকরা চাইতে কোনো আয়ের শর্ত ছাড়াই ব্রিটেনে স্পাউস নিয়ে আসতে পারেন। এখন ইউরোপিয় আদালত বলছে, ইইউ নাগরিকরা যদি ব্রিটিশ নাগরিকত্ব গ্রহণ করেন, তাহলেও তাদের স্পাউস আনার ক্ষেত্রে আয়ের শর্ত প্রযোজ্য হবে না। তারা ইইউ রাইটস চর্চা করতে পারবেন।
বিবিসির খবরে বলা হয়, স্পেনে জন্মগ্রহণকারী পার্লা নিরা গার্সিয়া অরমাজাবল ইইউর ফ্রি মুভমেন্টের সুযোগ নিয়ে অনেক দিন যাবত ব্রিটেনে বসবাস করছেন। ২০০৯ সালে তিনি ব্রিটিশ নাগরিকত্ব গ্রহন করেন।  তিনি ২০১৪ সালে আলজেরিয়ান এক ভিজিটরকে বিয়ে করেন। তার আলজেরিয়ান স্বামী ৬ মাসের ভিজিট ভিসা নিয়ে ২০১০ সালে যুক্তরাজ্যে এসেছিলেন। পরবর্তীতে ভিসার মেয়াদ শেষ হলেও তিনি ফেরত যাননি। এ জন্যে অবৈধ ইমিগ্রেন্ট হিসেবে তাকে দেশে ফেরত পাঠাতে চায় হোম অফিস।
স্পেন ইউরোপিয়ানভুক্ত দেশ হলেও আলজেরিয়া নন ইউরোপিয়ান দেশ। ইইউ ফ্রি মুভমেন্ট অনুযায়ী, ইইউভুক্ত দেশের নাগরিকরা ব্রিটেনে বসবাস করতে পারেন। কিন্তু পার্লা নিরা গার্সিয়া অরমাজাবল ইইউ নাগরিক হলেও পরবর্তীতে ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নিয়েছেন।  
২০১২ সালের আইন অনযায়ী, কোনো ব্রিটিশ নাগরিক অইউরোপিয় দেশের নাগরিককে স্পাউস হিসেবে ব্রিটেনে রাখতে চাইলে তাঁর বার্ষিক আয় বছরে ১৮ হাজার ৬শ পাউন্ড থাকা লাগবে। এই আইন দেখিয়ে হোম অফিস স্পেনিশ বংশোদ্ভূত ব্রিটিশ নাগরিক গার্সিয়ার আলজেরিয়ান স্বামীর স্পাউস ভিসা আবেদন প্রত্যাখান করে। গার্সিয়া ব্রিটিশ হাইকোর্টে এর সূরাহা চেয়ে আবেদন করেন। হাইকোর্ট বিষয়টি ইউরোপিয়ান কোর্টে পাঠিয়ে দেয়। শেষ পর্যন্ত গত মঙ্গলবার (১৪ নভেম্বর) ইউরোপিয়ান কোর্ট অব জাস্টিস এক রায়ে বলেছে, গার্সিয়া ব্রিটিশ নাগরিক হলেও তিনি স্পেনের বংশোদ্ভূত। ফলে তিনি ইইউ রাইটস চর্চা করতে পারবেন। যে কারণে অন্যান্য ইইউ নাগরিকদের মতই কোনো আয়ের শর্ত পালন ছাড়াই গার্সিয়া তাঁর আলজেরিয়ান স্বামীকে ব্রিটেনে রাখতে পারবেন।  
ইইউ আদলতের এ রায়ের ফলে যুক্তরাজ্যে বসবাসরত ইইউ নাগরিক যারা ব্রিটিশ নাগরিকত্ব নিয়েছেন তারা সবাই উপকৃত হবেন। কোনো আয়ের শর্ত ছাড়াই তারা অইউরোপিয় দেশের স্পাউসকে ব্রিটেনে আনার এবং রাখার সুযোগ পাবেন। এ রায়ের ফলে ইউরোপিয় দেশ থেকে আসার অনেক বাংলাদেশিও উপকৃত হবেন।