Share |

দিরাই-শাল্লা আসনে আওয়ামীলীগের মনোনয়ন চান সাবেক ভিপি ইকবাল হোসাইন

লণ্ডন, ৮ জানুয়ারি : আওয়ামীলীগের হয়ে আসছে জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লড়তে চান ঐহিত্যবাহী এমসি কলেজের সাবেক ভিপি ইকবাল হোসাইন। সুনামগঞ্জের দিরাই-শাল্লা আসনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের মনোনয়ন পেতে ইচ্ছুক এই যুক্তরাজ্য প্রবাসী নেতা। তাঁর অতীত কার্যক্রম ও যোগ্যতা বিচারে দলের হাইকমান্ড তাঁর মনোনয়নের বিষয়টি গুরুত্বের সাথে বিবেচনা করবে এমন প্রত্যাশা করেছেন তিনি।
গত ২৬ ডিসেম্বর মঙ্গলবার পূর্ব লন্ডনের ব্লুমুন মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি আসছে নির্বাচনে প্রার্থী হবার ইচ্ছা প্রকাশ করেন। এসময় যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীসহ কমিউনিটির বিশিষ্ট ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।
সংবাদ সম্মেলনে ইকবাল হোসাইন জানান, তিনি দলের মনোনয়ন পেয়ে নির্বাচিত হলে অবহেলিত দিরাই-শাল্লার রাস্তাঘাটের উন্নয়নই হবে তার প্রধান কাজ। তিনি বলেন, এলাকায় নিয়মিত চেম্বার করে মানুষের সুখ দু:খ শুনে তা সমাধানের চেষ্টা চালিয়ে যাবো। 
উল্লেখ্য, ছাত্রজীবন থেকেই আওয়ামী রাজনীতির সাথে সম্পৃক্ত ইকবাল হোসেইন ১৯৮০-৮১ সালে সিলেট এমসি  কলেজের ভিপি নির্বাচিত হন। এরপর ১৯৮৪ সালে চট্রগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় থেকে উচ্চতর ডিগ্রী অর্জনের পর ১৯৯০ সালে ব্রিটেনে চলে আসেন। তিনি বাংলাদেশী অধ্যুষিত টাওয়ার হ্যামলেটস বারায় প্রাথমিক স্কুলের বাংলা শিক্ষক হিসেবে চাকুরী শুরু করেন। এরপর তিনি গ্রীণউইচ ইউনিভার্সিটি থেকে বিএ এডুকেশন স্টাডিজ অনার্স ডিগ্রী লাভ করেন। ইকবাল হোসাইন বার্নেট, হার্টফোর্ডশায়ার ও টাওয়ার হ্যামলেটসের বিভিন্ন স্কুলে শিক্ষকতা করেন। তিনি বাংলাদেশী টিচার্স এসোসিয়েশনের দুইবারের নির্বাচিত সাধারণ সম্পাদক। টাওয়ার হ্যামলেটস লেবার পার্টির রাজনীতিতে সক্রিয় ইকবাল হোসেইন যুক্তরাজ্য আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা কমিটির সদস্য ও সর্ব ইউরোপীয় বঙ্গবন্ধু পরিষদের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদকেরও দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি সুনামগঞ্জ জেলা ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন ইউকের সভাপতি হিসেবেও দায়িত্ব চালিয়ে যাচ্ছেন। সামাজিক সংগঠনের মাধ্যমে তিনি এলাকায় শিক্ষার প্রসার ও নানা সমাজসেবামূলক কর্মকাণ্ডেও তিনি সক্রিয়। 
এমপি নির্বাচিত হলে স্থানীয় বিভিন্ন ইস্যু সমাধানের পাশাপাশি দুর্নীতি বন্ধ, প্রশাসনে স্বচ্ছতা ফিরিয়ে আনতে প্রবাসের দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগাবেন বলেও জানান তিনি। এক্ষেত্রে তিনি প্রবাসী বাঙালী বিশেষকরে যুক্তরাজ্যে বসবাসরতদের আন্তরিক সমর্থন, সহযোগিতা ও দোয়া কামনা করেছেন।