Share |

সফর শেষে ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী : ব্রিটেন-চীন সম্পর্কের স্বর্ণযুগ

লন্ডন, ৫ ফেব্রুয়ারি : চীন সফরের দ্বিতীয় দিন বৃহস্পতিবার দেশটির প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংয়ের সাথে বৈঠক শেষে এক যৌথ সংবাদ সম্মেলনে ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে বলেছেন, সম্পর্কের স্বর্ণ যুগ উপভোগ করছে দুই দেশ। দুই দেশের মধ্যে ইতোমধ্যে প্রতিষ্ঠিত কৌশলগত বৈশ্বিক অংশীদারত্ব আরো এগিয়ে নিতে চান বলে আশা প্রকাশ করেছেন তিনি। বুধবার চীন সফর শুরু করেন ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী মে। তার সাথে ৫০ সদস্যের ব্যবসায়ীর একটি শক্তিশালী প্রতিনিধিদল চীন সফর করছে।
সফরের প্রথম দিনে চীনা প্রধানমন্ত্রী লি কেকিয়াংয়ের সাথে বৈঠক করেন মে। তাদের আলোচনায় বাণিজ্য ও ব্রেক্সিট বেশি গুরুত্ব পায়। তবে প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের সাথে উত্তর কোরিয়ার পরমাণু কার্যক্রমসহ অন্যান্য বৈশ্বিক ইস্যুই বেশি প্রাধান্য পেয়েছে। বেইজিংয়ে রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন দিয়াওইউতাইয়ে দুই বিশ্বনেতা করমর্দন করার পর একটি বিশাল ‘সম্মেলন টেবিল’-এর দুই পাশে প্রতিনিধিদের নিয়ে মুখোমুখি বৈঠকে বসেন জিনপিং ও মে। ২০১৫ সালে প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের ব্রিটেন সফরের পর থেকে দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্য যোগাযোগ বাড়ার কথা উল্লেখ করেন মে। তিনি বলেন, ‘শিক্ষা ও সংস্কৃতির দিক থেকেও মানুষে মানুষে যে যোগাযোগ গড়ে তুলতে সম হয়েছি আমরা, তা নিয়েও আমি খুব খুশি।’ ব্রিটেন ও চীনকে বিশ্বমঞ্চে গুরুত্বপূর্ণ দুই সদস্য হিসেবে অভিহিত করে সন্তোষ প্রকাশ করেন তিনি। সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্ক বাড়ানোর বিষয়ে দুই দেশই ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছে। আন্তর্জাতিক ইস্যুতে পরস্পরের সহযোগী হিসেবে কাজ করার প্রত্যয় ব্যক্ত করেছে তারা।