Share |

টাওয়ার হ্যামলেটস নির্বাচন : রক্তঝরা রাজনীতি, নতুন রেকর্ড

টাওয়ার হ্যামলেটসের রাজনীতি নিয়ে মিডিয়ার পছন্দের শিরোনাম- নির্বাচনে অনিয়ম আর ভোটে অসাধুতা এই এলাকার রাজনৈতিক বন্ধ্যাত্ব কিংবা অস্থিরতাও নতুন নয় আর সেই অস্থিরতা নির্বাচন এলেই তুঙ্গে ওঠে তেমনি এক ঘটনা এবার অতীতের রেকর্ড ভঙ্গ করেছে এসপারার থেকে নির্বাচনে দাঁড়ানো কাউন্সিলার মোহাম্মদ আব্দুল্লাহ আল মামুনের রক্তাক্ত চেহারা আমরা সবাই মিডিয়ার কল্যাণে দেখেছি 

মূলস্রোতের মিডিয়ায় টাওয়ার হ্যামলেটস নিয়ে নেতিবাচক প্রচার-প্রচারণার অনেকটিই পক্ষপাতমূলক কিংবা উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে দাবি করা হয় এই দাবি একেবারে উড়িয়ে দেওয়া না গেলেও এসব নেতিবাচক খবরের শিরোনাম তৈরীতে এই এলাকার অতি উৎসাহীদের ভূমিকাও কম নয়  কাউন্সিলার প্রার্থী মামুনের যে হামলা হয়েছে তা মোটেও ছোট ঘটনা নয় মাথায় ১১টি সেলাই লেগেছে তার ওয়াপিং ওয়ার্ডে নির্বাচনী প্রচারকালে মুখোশধারী এক দুর্বৃত্ত ধাতব বস্তু দিয়ে পেছন থেকে আঘাত করলে তিনি মাটিতে লুটিয়ে পড়েন সৌভাগ্যক্রমে তিনি বেঁচে গেছেন মামুন যে আক্রমণের শিকার হয়েছেন তাতে তার প্রাণহনি ঘটতে পারতো 

আমরা জানি, পুলিশে ঘটনাটি রিপোর্ট করা হয়েছে পুলিশ তাদের নিয়মতান্ত্রিক পদ্ধতিতে তদন্ত চালিয়ে যাবে কিন্তু এখানকার রাজনীতি কিংবা নির্বাচন যারা পর্যবেক্ষণ করে থাকেন তারা নিজেদের হিসাব-নিকাশে হয়তো আন্দাজ করতে পারছেন কে বা কারা এর পেছনে জড়িত থাকতে পারে কারণ ব্যক্তিগত শত্রুতার সূত্র ধরে আঘাত আসেনি এসেছে রাজনৈতিক বিবেচনায় ঘটনার সপ্তাহদুয়েক আগে তাকে হুমকি দেওয়া হয়েছিলো বলে জানা গেছে তার উপর শারিরীক আক্রমণ সেই হুমকির ধারাবহিকতা বলে ধরে নেয়া যায় 

টাওয়ার হ্যামলেটসে রাজনীতির ব্যতিক্রমী চরিত্র আছে আর নির্বাচনকালে যে উত্তাপ ছড়িয়ে পড়ে তা অনেক সময় নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যায় আমরা জানি, যারা এই  এলাকায় রাজনীতিতে জড়িত কিংবা নির্বাচনী খেলায় নামেন তাদের সবার আচরণ, মান সমান নয় তাই এক্ষেত্রে দল বা গ্রুপের নেতৃত্বকে এসব অপরাধ রোধে সক্রিয় হতে হবে 

পাশাপাশি, আমরা আশা করবো পুলিশ এই ঘটনায় জড়িত দুর্বৃত্তদের খুঁজে বের কওে বিচারের আওতায় নিয়ে আসতে সক্ষম হবে এবারের নির্বাচনকে সামনে রেখে টাওয়ার হ্যামলেটসে যে অপরাধ সংঘটিত হলো তা নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করেছে বিরোধীপক্ষ কিংবা প্রতিদ্বন্দ্বীকে রাজনৈতিকভাবে মোকাবেলায় ব্যর্থ হয়েই দুর্বৃত্তরা এই কাণ্ড ঘটিয়েছে তা অনুমান করা কষ্টকর নয় কিন্তু এই ধরনের অপতৎপরতার পরিণতি যে ভালো হয় না, তা ঘটনায় জড়িতদের বোঝা দরকার এবারের নির্বাচনে সেই বার্তাটিই ওয়াপিং-এর জনগণ দিতে পারলে সেটি রাজনীতির নামে যারা অপরাধী কর্মকাণ্ডের জড়ায় তাদের জন্য বড় এক শিক্ষা হয়ে থাকবে বলে আমরা মনে করি