Share |

স্বাগতম মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা

সারওয়ার কবির

লন্ডন, ১৬ এপ্রিল : বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ, জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে সরকার গত বছরে দেশ পরিচালনায় যে সাফল্য দেখিয়েছে,তারই প্রতিফলন এখন বাংলাদেশে এক মাইলফলক হয়ে ইতিহাস সৃষ্টি করেছে   

বছর আগের বাংলাদেশ আর আজকের বাংলাদেশ এক নয় আজকের বাংলাদেশ আত্মপ্রত্য্যয়ী বাংলাদেশ ক্ষুধা, দারিদ্র্য, অশিক্ষা গ্রামাঞ্চল থেকে প্রায় বিতাড়িত হয়েছে বললেও ভুল হবে না বদলে গেছে বাংলাদেশ নানামুখী চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করেই শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন বর্তমান সরকার বাংলাদেশকে নিয়ে গেছে উন্নয়নের মহাসড়কে

সরকারের রয়েছে জাতীয় আন্তর্জাতিক পর্যায়ে গৌরবময় অনেক অর্জন চলতি বছরের শুরুতেই প্রথম থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের মাঝে ৩৫ কোটির বেশি বই বিতরণ করেছে সরকার 

বিদ্যু পাদন ক্ষমতা ৮৫ ভাগ বৃদ্ধি পেয়েছে ৩৫ লাখ সংযোগসহ ৬৫টি নতুন বিদ্যুকেন্দ্র চালু হয়েছে বর্তমান প্রবৃদ্ধির হার দশমিক ২৮ শতাংশ মাথাপিছু আয় ১৬১০ মার্কিন ডলার এই ধারা অব্যাহত থাকলে ২০২১ সালে মাথাপিছু আয় দাঁড়াবে হাজার মার্কিন ডলারে ২০২১ সালের মধ্যে বাংলাদেশ হবে মধ্যম আয়ের দেশ জননেত্রী শেখ হাসিনা ঘোষণা করেছেন ভিশন ২০৪১ ২০৪১ সালে বাংলাদেশ হবে উন্নত দেশ নারীর ক্ষমতায়নে অনন্য অবদানের জন্য শেখ হাসিনাকেপ্ল্যানেট ৫০-৫০ চ্যাম্পিয়নএবংএজেন্ট অব চেঞ্জ অ্যাওয়ার্ড ভূষিত করেছে জাতিসংঘ এছাড়া হার্ভার্ড ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের সঙ্গে যৌথভাবে করা ওয়ার্? ইকোনমিক ফোরামেরদি গ্লোবাল জেন্ডার গ্যাপ রিপোর্টে রাষ্ট্রক্ষমতায় নারীর অবস্থান বিবেচনায় বিশ্বের এক নম্বরে উঠে এসেছে বাংলাদেশের নাম

দেশকে উন্নয়নের পথে ধাবিত করলেও গত কয়েক বছরে অনেক কঠিন পথ পাড়ি দিতে হয়েছে শেখ হাসিনার সরকারকে ষড়যন্ত্র-চ্যালেঞ্জ পিছু ছাড়েনি সরকারের তবে সব ষড়যন্ত্র আর চ্যালেঞ্জ প্রজ্ঞার সঙ্গে মোকাবেলা করেই দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা দেশের নিজস্ব অর্থায়নে চলছে চ্যালেঞ্জিং পদ্মা সেতু নির্মাণ, দ্রুতগতিতে এগোচ্ছে মেট্রোরেল, এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ে, গভীর সমুদ্রবন্দর, রূপপুর পরমাণু বিদ্যু কেন্দ্র নির্মাণ কাজ

 

শেখ হাসিনার সরকারের সাফল্য 

জনগণের মাথাপিছু আয় ২০০৫-০৬ সালের ৫৪৩ মার্কিন ডলার থেকে বৃদ্ধি পেয়ে বর্তমানে হাজার ৬১০ ডলারে উন্নীত দারিদ্র্যের হার ২০০৫-০৬ সালে ছিল ৪১. শতাংশ, হ্রাস পেয়ে হয়েছে ২২. শতাংশ অতি দারিদ্র্যের হার ২৪.২৩ থেকে ১২ শতাংশে হ্রাস হয়েছে সরকারের লক্ষ্য ২০২১ সালের মধ্যে দারিদ্র্যের হার ১৫-১৬ শতাংশে এবং অতি দারিদ্র্যের হার - শতাংশে নামিয়ে আনা ২০০৫-০৬ অর্থবছরে বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ছিল মাত্র . বিলিয়ন মার্কিন ডলার, যা বর্তমানে ৩৩.০৪ বিলিয়ন মার্কিন ডলারেরও ওপর মানুষের ক্রয়ক্ষমতা যেমন বেড়েছে, মূল্যস্ফীতি সহনীয় পর্যায়ে থাকায় মানুষের জীবনমানের উন্নতি ঘটেছে ২০০৯ সালে মূল্যস্ফীতি ছিল ডাবল ডিজিটে বর্তমানে মূল্যস্ফীতি . শতাংশ ২০০৯ সালে দেশে বিদ্যু পাদন ছিল ৩২০০ মেগাওয়াট বর্তমানে বিদ্যু পাদন প্রায় ১৬১৪৯ মেগাওয়াট পাবনার রূপপুরে ২০০০ মেগাওয়াট ক্ষমতাসম্পন্ন পারমাণবিক বিদ্যুকেন্দ্র নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে বছরে খাদ্যশস্য পাদন প্রায় কোটি মেট্রিক টনে উন্নীত এবং মিঠা পানির মাছ পাদনে বাংলাদেশ বিশ্বে চতুর্থ এবং সবজি পাদনে তৃতীয় স্থানে বাংলাদেশ বিশ্বের চতুর্থ চাল পাদনকারী দেশ কৃষকদের জন্য ১০ টাকার বিনিময়ে ব্যাংক হিসাব খোলার কার্যক্রম অব্যাহত রয়েছে বছরে প্রায় ৬১ হাজার ২৯৮ কোটি টাকার কৃষি সহায়তা প্রদান করা হয়েছে কৃষি ব্যাংকের মাধ্যমে স্বল্প সুদে বিনা জামানতে কৃষি ঋণের ব্যবস্থা করা হয়েছে ২০১৬-১৭ অর্থবছরে ৬৮ হাজার ৩০৬ মেট্রিক টন স্য স্যজাত পণ্য রপ্তানি করে ,২৮৭ কোটি ৬৪ লাখ টাকা আয় হয়েছে ৩১ লাখ ৫০ হাজার বয়স্ক ভাতাভোগীকে প্রতিমাসে ৫০০ টাকা করে ভাতা প্রদান

বর্তমানে দুস্থ মহিলাদেরকে প্রতিমাসে ৫০০ টাকা করে ভাতা প্রদান অন্যতম সাফল্য মাতৃত্বকালীন ভাতাভোগীর সংখ্যা লাখে উন্নীত হয়েছে কর্মজীবী সন্তান সম্ভবা মায়েদের জন্য মাদার সহায়তা কর্মসূচির মাধ্যমে মোট লাখ ৮০ হাজার ৩০০ দরিদ্র মা-কে ভাতা প্রদান সারাদেশে হতদরিদ্র ১০ লাখ মহিলাকে মাসিক ৩০ কেজি চাল প্রদান করা হচ্ছে একটি বাড়ি একটি খামার প্রকল্পের অধীনে ক্ষুদ্র সঞ্চয়ের মাধ্যমে দারিদ্র্য বিমোচন কর্মসূচি বাচ্চবায়ন করা হচ্ছে বছরের প্রথমদিনে বাংলাদেশের মাধ্যমিক পর্যন্ত শিক্ষার্থীদের হাতে বিনামূল্যে বই 

২০১০ সাল থেকে মাধ্যমিক পর্যন্ত ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে বিনামূল্যে পাঠ্যবই বিতরণ কর্মসূচি শুরু করা হয় দুনিয়ার কোথাও বিনামূল্যে বই বিতরণের এমন নজির আর নেই ২০১৮ সালে কোটি ৩৭ লাখ ছাত্র ছাত্রীর মধ্যে ৩৫ কোটি ৪২ লাখ ৯০ হাজার ১৬২টি বই বিনামূল্যে বিতরণ করা হয় মায়ের হাসি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত কোটি ৩০ লাখ শিক্ষার্থীর মায়েদের কাছে মোবাইল ফোনে উপবৃত্তির টাকা পাঠানো হচ্ছে ২৬ হাজার ১৯৩টি প্রাথমিক বিদ্যালয় জাতীয়করণ করা হয়েছে একইসাথে এসব বিদ্যালয়ের লাখ ২০ হাজার শিক্ষকের চাকরি সরকারি করা হয় ২০০৯ সাল থেকে পর্যন্ত ৩৪ হাজার ১৩২টি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে কম্পিউটার ল্যাব মা?িমিডিয়া ক্লাসরুম স্থাপন করা হয়েছে স্বাস্থ্যসেবা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দিতে ১৬ হাজার ৪৩৮টি কমিউনিটি ক্লিনিক ইউনিয়ন স্বাস্থ্যকেন্দ্র স্থাপন করা হয়েছে দরিদ্র মানুষকে বিনামূল্যে ৩০ ধরনের ওষুধ দেওয়া হচ্ছে ৬৪টি জেলা হাসপাতাল ৪২১টি উপজেলা হাসপাতাল থেকে মোবাইল ফোনের মাধ্যমে চিকিসা পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে টেলিমেডিসিনের মাধ্যমে রোগী শহরের হাসপাতালে না এসেও বিশেষজ্ঞ-চিকিসকদের পরামর্শ নিতে পারছেন মানুষের গড় আয়ু বেড়ে হয়েছে ৭১ বছর মাস প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কন্যা সায়মা ওয়াজেদ হোসেনের ঐকান্তিক আগ্রহ এবং নিরলস প্রচেষ্টায় অটিস্টিক শিশুদের সুরক্ষায় ২২টি সরকারি বেসরকারি হাসপাতালে শিশু বিকাশ কেন্দ্র প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে বিমানবন্দর থেকে মতিঝিল পর্যন্ত ২৬ কিলোমিটার এক্সপ্রেসওয়ে নির্মাণের কাজ এগিয়ে চলছে প্রায় কিলোমিটার দীর্ঘ বহুল প্রতীক্ষিত মগবাজার-মৌচাক ফ্লাইওভার উদ্বোধন করা হয়েছে মেট্রোরেল নির্মাণকাজও শুরু হয়েছে ঢাকা-চট্টগ্রাম চার-লেন চালু হয়েছে যাত্রাবাড়ী থেকে কাঁচপুর পর্যন্ত দেশের প্রথম আট-লেনের মহাসড়ক চালু হয়েছে নিজস্ব অর্থায়নে পদ্মাসেতুর নির্মাণকাজ দ্রুত এগিয়ে যাচ্ছে ঢাকার যানজট নিরসনে এলিভেটেড এক্সপ্রেসওয়ের কাজ বাস্তবায়ন হচ্ছে

দেশে মোবাইল সিম গ্রাহক ১৩ কোটি ৯৩ লাখ এবং ইন্টারনেট গ্রাহক কোটি ৭১ লাখ ৪২ হাজারে পৌঁছেছে ২৫ হাজারেরও বেশি ওয়েবসাইট নিয়ে বিশ্বের বৃহত্তম ওয়েব পোর্টালতথ্য বাতায়নচালু হয়েছে, যা আন্তর্জাতিকভাবে ইতোমধ্যে পুুরস্কৃত হয়েছে মাসে প্রায় ৯০ হাজার জনগণ এই পোর্টাল থেকে সেবা গ্রহণ করে থাকেন শিল্পায়ন এবং বিদেশি বিনিয়োগ আকৃষ্ট করার জন্য ১০০টি বিশেষ অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠার কাজ এগিয়ে চলছে এতে কোটির বেশি লোকের কর্মসংস্থান হবে

শিশুদের জন্য প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষার ব্যবস্থার পাশাপাশি শিশুর ঝরে পড়া রোধে বিদ্যালয়ে শিশুবান্ধব পরিবেশ সৃষ্টি, মিড-ডে মিল চালু করা হয়েছে মা?িমিডিয়া ক্লাসরুম আইসিটি ল্যাব প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে বাংলাদেশ আজ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে অপ্রতিরোধ্য গতিতে এগিয়ে চলেছে শেখ হাসিনা ঘোষিত ভিশন ২০২১ ইতোমধ্যে অনেকটাই বাস্তবায়িত হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অসমাপ্ত কাজ সম্পন্ন হচ্ছে আজ তাঁরই কন্যা গণমানুষের নেত্রীর হাত ধরে

শেখ হাসিনার হাত ধরেই বাস্তবায়িত হচ্ছে জাতির পিতার স্বপ্ন ছিলো অসাম্প্রদায়িক, ক্ষুধা দারিদ্রমুক্ত দেশ তাঁর হাত ধরে বাংলাদেশ আজ দারিদ্রমুক্ত, দেশ আজ খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণ এসবই দেশরতœ শেখ হাসিনার অবদান মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কমনওয়েলথ সম্মেলনে যোগ দিতে আজ লন্ডন আসছেন তাঁকে স্বাগত জানাতে প্রস্তুত যুক্তরাজ্যের সর্বস্তরের বাঙালিরা শেখ হাসিনাকে স্বাগত জানাই তাঁর দৃঢ় সাহসী মনোবলের জন্য স্বাগত জানাই ১৮ কোটি মানুষের বসবাসের জন্য সুন্দর সমৃদ্ধ বাংলাদেশ বিনির্মাণের জন্য স্বাগত আপনাকে দরিদ্র, নীপিড়িত অসহায় মানুষের শেষ অবলম্বন হিসেবে স্বাগত আপনাকে দেশকে উন্নয়নশীল রাষ্ট্রে পরিণত করবার জন্যে ¦াগতম শেখ হাসিনা, বাংলাদেশেকে উন্নয়নের রোল মডেল হিসেবে গড়ে তোলবার জন্য

 লেখক : সাংবাদিক