Share |

বেথনালে গ্রিন অ্যাসিড হামলা : বাঙালি যুবকের ১৪ বছরের জেল

পত্রিকা রিপোর্ট
লন্ডন, ১৪ মে : বেথনাল গ্রিনে অ্যাসিড হামলার ঘটনায় রাহাদ হোসাইন নামে এক যুবককে ১৪ বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে স্নেয়ার্সব্রুক ক্রাউন কোর্ট। গত ১১ মে শুক্রবার এই সাজা ঘোষণা করে আদালত। ২৪ বছর বয়সী রাহাদ হোসাইন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত।  
গত বছরের শেষের দিকে লন্ডনে পরপর বেশ কয়েকটি অ্যাসিড হামলার ঘটনা ঘটে। সম্প্রতি কয়েকটি ঘটনার বিচার সম্পন্ন হয়েছে। সবকটি রায়েই আদালত অ্যাসিড হামলাকারীকে দীর্ঘমেয়াদী সাজা দিয়েছেন। অ্যাসিড বহন ও অ্যাসিড হামলার বিরুদ্ধে আদালতের এসব রায় কঠোর বার্তা বলে মনে করা হচ্ছে। অ্যাসিড হামলা বন্ধে সরকার যে কঠোর সেই বার্তাই দিচ্ছে এসব রায়।  
গত বছরের জুলাইয়ে পূর্ব লন্ডনের টাওয়ার হ্যামলেটস এলাকার বেথনাল গ্রিনে অ্যাসিড হামলার ঘটনা ঘটে। ২৪ বছর বয়সী মোহাম্মদ আহমেদ এবং ২৫ বছর বয়সী মোহাম্মদ হোসাইন গাড়িতে করে যাচ্ছিলেন। তাদের গাড়ি রোমান রোড়ের সিগনালে থামলে জানালা দিয়ে তাদের ওপর অ্যাসিড নিক্ষেপ করে সমবয়সী যুবক রাহাদ খান।  আক্রান্ত দুজন একে অপরের কাজিন। হামলায় তাদের মুখ ও শরীরের কোনো কোনো অংশ ঝলসে যায়। তাদের দ্রুত গাড়ি চালিয়ে কিছুদূর গিয়ে একটি ক্যাশ অ্যান্ড ক্যারি দোকানে যেতে সক্ষম হন। সেখানে তারা আক্রান্ত স্থানে পানি ঠেলে ক্ষত নিরসনের চেষ্টা করেন।  
হামলার দুদিন পর স্টোক নিউংটন পুলিশ স্টেশনে গিয়ে নিজেই ধরা দেন রাহাদ।
আদালতের শুনানিতে বলা হয়, ঘটনার সময় হামলাকারী রাহাদ হোসাইনকে চিনে ফেলেন আক্রান্ত একজন। তাঁরা একসঙ্গে একই স্কুলে পরাশোনা করেছেন বলে জানান।  
কোনো কারণ ছাড়াই তিনি তাদের উপর এসিড নিক্ষেপ করেন বলেও আদালতে উল্লেখ করা হয়। ক্রাউন প্রসিকিউশন সার্ভিসের লুইস মুর বলেন, এটা ছিল দুজন ব্যক্তির ওপর ইচ্ছাকৃত হামলা। আক্রান্ত ভাগ্যবান যে তারা বড় ধরণের ক্ষতি থেকে বেঁচে গেছেন।