Share |

ক্রিকেটার আশরাফুলের সাথে লন্ডন স্পোর্টিফের মতবিনিময়

লন্ডন, ১৩ আগস্ট : বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মুহাম্মদ আশরাফুলের সাথে মতবিনিময় সন্ধ্যার আয়োজন করে ব্রিটেনে বাঙালি মালিকানাধীন স্পোর্টস ক্লাব- লন্ডন স্পোর্টিফ।  ‘‘এন ইভিনিং উইথ মুহাম্মদ আশরাফুল‘‘ শিরোনামের এই অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের ক্রিকেটে অবদানের স্বীকৃতি হিসেবে আশরাফুলকে সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন ক্লাবের প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম খলিলসহ অন্যান্য কর্মকর্তারা।  অনুষ্ঠানে লন্ডন স্পোর্টিফের খেলোয়ারদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে মুহাম্মদ আশরাফুল বলেন, বাংলাদেশের ক্রিকেট এখন অনন্য উচ্চতায়। টাইগার্সদের পারফমেন্স, বড়ো বড়ো দলগুলোর সাথে জয় এবং পেশাদার ক্রিকেটারদের কারণে দেশের নতুন প্রজন্মের কাছে তুমুল জনপ্রিয় ক্রিকেট। বিদেশের মাটিতেও প্রবাসী বাঙালিরা ক্রিকেটকে ধারন করেন, এটি সত্যিই অনুপ্রেরণা দেয়।  
চলতি মাসেই আর্ন্তজাতিক ক্রিকেট থেকে নিষেধাজ্ঞা উঠে যাচ্ছে মুহাম্মদ আশরাফুলের। জাতীয় দলে কবে ফিরবেন- এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, জাতীয় দলের খেলোয়াররা এখন আগের চেয়ে অনেক ভালো অবস্থানে। এই মুহুর্তে দলে ফেরা খুবই কঠিন। সকলেই ভালো ক্রিকেট খেলছে। তবে বিপিএলসহ বিভিন্ন আসলে পারফরমেন্স করেই জাতীয় দলে আবারও ফিরতে পারবেন বলে আশাবাদী তিনি।  ইংল্যান্ড এবং ওয়েলসে আগামী ২০১৯ বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল খুব ভালো খেলবে বলে প্রত্যাশা করেন দেশের ক্রিকেটের একসময়ের এই আশার ফুল।  
হাতুরু সিং বাংলাদেশের ইতিহাসে সবচেয়ে ভলো হেড কোচ ছিলেন বলেও মন্তব্য করেন তিনি। ক্রিকেটারদের ব্যক্তিগত চরিত্র নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে সাবেক এই অধিনায়ক বলেন, মাঠের বাইরে চরিত্র, খেলার মাঠেও প্রভাব ফেলে। তাই এ ক্ষেত্রে শৃঙ্খলা খুবই জরুরি।   লন্ডন স্পোর্টিফের সেক্রেটারি মুহিবুল আলমের পরিচালনায় শুরুতে পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন ভাইস প্রেসিডেন্ট জাকির আহমদ। অনুষ্ঠানে ক্লাবের খেলোয়াড় ও কর্মকর্তাদের পরিচয় করিয়ে  দেয়া হয়।  
অনুষ্ঠানে উপস্থিত ক্লাবের খেলোয়ার ও বিভিন্ন মিডিয়ার সাংবাদিকরা বিভিন্ন বিষয়ে প্রশ্ন করেন মুহাম্মদ আশরাফুলের কাছে। পরে মুক্ত আলোচনায় উঠে আসে দেশের ক্রিকেটের বিভিন্ন বিষয়।  
অনুষ্ঠানে ক্লাবের অন্যান্য কর্মকর্তাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, ট্রেজারার মুহাম্মদ সাব্বির ইসলাম চৌধুরী, ম্যানেজার কলিম উদ্দিন, প্রেস এন্ড পাবলিসিটি সেক্রেটারী শুয়েব আহমদ, ইভেন্ট সেক্রেটারি আজহারুল ইসলাম আদনান, ক্লাব সদস্য মুহি উদ্দিন মিকদাদ, সাইফুর রহমান, রোমান বক্ত চৌধুরী, আব্দুল্লাহ রহিম পাঠানী, এখলাছুর রহমান পাক্কু, মুহিবুর রহমান জনি,ফরদাদ উদ্দিন, সাজু মিয়া, সালমান আহমদ প্রমুখ।