Share |

এমসি কলেজের ১২৫ বছর পূর্তি ও প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সম্পন্ন

তৈয়বুর রহমান শ্যামল, ম্যানচেস্টার থেকে
লন্ডন, ১৭ সেপ্টেম্বর : এমসি কলেজকে পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার জোর দাবী উত্থাপনের মধ্যদিয়ে সিলেটের ঐতিহ্যবাহী এই বিদ্যাপীঠের ১২৫ বছর পূর্তি ও যুক্তরাজ্যে বসবাসরত প্রাক্তন শিক্ষার্থীদের পুনর্মিলনী সম্পন্ন হয়েছে। গত ৯ সেপ্টেম্বর রোববার ম্যানচেস্টারের ভারমিলিয়নের হলরুমে অনুষ্ঠিত এই মিলনমেলায় যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে এমসি কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা যোগ দেন।
 ১২৫ বছর পূর্তি উদযাপনের আয়োজন সফল করার জন্য বিগত দুই বছর বিভিন্ন শহরে সভা করেছিলেন উদ্যোক্তারা। অনুষ্ঠানে যোগ দিয়ে বহুদিন পর সহপাঠীদের কাছে পেয়ে আনন্দে কাটিয়েছেন প্রাক্তন শিক্ষার্থীরা। দুপরে র‌্যালীর মাধ্যমে শুরু হয় দিনব্যাপি উৎসবের। র‌্যালীতে আয়োজকদের সাথে ছিলেন আগত অতিথিবৃন্দও। এরপর মৌলানা খাইরুল হুদা খানের কোরআন তেলাওয়াতের মধ্যদিয়ে হলে শুরু হয় মূল অনুষ্ঠানমালা। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ ও ব্রিটেনের জাতীয় সংগীত পরিবেশন করা হয়। এমসি কলেজের ১২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষে একটি স্মারক ম্যাগাজিন প্রকাশ করা হয়।
বাংলাদেশের রাষ্ট্রপতি আব্দুল হামিদ, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের বার্তা পড়ে শোনানো হয়। এছাড়া বাংলাদেশের শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের ভিডিও বার্তা প্রদর্শন করা হয়।
আয়োজকদের পক্ষ থেকে স্বাগত বক্তব্য রাখেন আহবায়ক ডা: মোশাররফ হোসেন। অতিথিদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন শ্যাডো সেক্রেটারি অব এডুকেশন আফজাল খান এমপি, শ্যাডো সেক্রেটারি অব এডুকেশন এঞ্জেলা রায়নার এমপি, সী মার্ক  গ্রুপের চেয়ারম্যান ইকবাল আহমেদ ওবিই, ম্যানচেস্টার মেট্রোপলিটান ইউনির্ভাসিটির গভর্নর মোহাম্মদ হাবিবুল্লাহ ওবিই, ম্যানচেস্টারস্থ বাংলাদেশ হাইকমিশনের সহকারী হাইকমিশনার আবু নাসের মোহাম্মদ আনোয়ারুল ইসলাম, কলেজের প্রাক্তন শিক্ষার্থী বিসিএর সাবেক সেক্রেটারি জেনারেল এম এ মুনিম, যুক্তরাজ্য সফরে আসা বাংলাদেশ উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক ড. শোয়াইব জিবরান, কলেজের সাবেক শিক্ষক আব্দুল মালেক, বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতা কবির আহমেদ এমবিইসহ যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন শহর থেকে রিইউনিয়নে যোগ দেয়া বিশিষ্টজনেরা।
এমসি কলেজের সাবেক ভিপি খছরুজামান খছরু তাঁর বক্তব্যে ঐতিহ্যবাহী এই কলেজটিকে পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয়ে উন্নীত করার জন্য প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবী জানালে এম এ মুনিম তাতে সমর্থন দেন।
অনুষ্ঠানে স্মৃতিচারণ করেছেন সাবেক শিক্ষার্থীদের অনেকে। অনুষ্ঠানমালায় আরো ছিলো সঙ্গীত পরিবেশনা আর র‌্যাফল ড্র। অনুষ্ঠানের সার্বিক পরিচালনায় ছিলেন আয়োজক কমিটির মেম্বার সেক্রেটারি মোস্তফা কামাল খান, জাকি মোস্তফা টুটুল, আবদুল হামিদ টিপু, শেখ আবু জাফর, ছদরুল ইসলাম, ডা. আলী জাহান।