Share |

আমার মুখ বাঁধা - আনোয়ার চৌধুরী

নজরুল ইসলাম বাসন
লণ্ডন, ১ অক্টোবর : কেইম্যান আইল্যান্ড থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া গভর্ণর আনোয়ার চৌধুরীকে লন্ডনে আবার পদায়ন করা হবে। ফরেন এন্ড কমনওয়েলথ দফতর এখনও তার অপসারণের ব্যাপারে মুখ না খুললেও জানা গেছে যে, তিনি তার নতুন পদে এ মাসের মধ্যভাগে যোগ দেবেন। গত রোববার (৩০ সেপ্টেম্বর) লণ্ডনের ওটু এরিনাতে অনুষ্ঠিত এশিয়ান রেস্টুরেন্ট এন্ড টেকওয়ে অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে আনোয়ার চৌধুরী এসেছিলেন সস্ত্রীক। সাবেক হাইকমিশনার আনোয়ার চৌধুরীকে কাছে পেয়ে তার শুভাকাাখীরা ঘিরে ধরেন। বহুদিন পর তিনিও খোলামেলা কথাবার্তা বলতে থাকেন। এ সময় তিনি বলেন, চাকুরিতে যোগ দেয়ার পর তিনি পর্যায়ক্রমে বহু উচ্চপদে আসীন হয়েছেন। হাই কমিশনার হিসেবে বাংলাদেশ ও পেরুতে দায়িত্ব পালন করেছে। তার সর্বশেষ কর্মক্ষেত্র ছিল কেইম্যান আইল্যান্ডে। গভর্ণর হিসেবে মাত্র তিন মাস দায়িত্ব পালন করার পর তাঁকে অজানা কারণে সেখান থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়েছে। 
সকলের জানতে চেয়েছিল, কেইম্যানে কি ঘটেছিল। জবাবে আনোয়ার চৌধুরী খুব হতাশা প্রকাশ করে বলেছেন, আমি মুখ খুলতে পারছি না। আমার মুখ বাঁধা। আমি প্রকাশ করতে পারছিনা কি হয়েছে। তবে আপনারা যদি কেইম্যানের সংবাদ মাধ্যমগুলো দেখেন, দেখবেন তারা আমার সম্পর্কে কি বলছে। তাদের সাথে আমার অত্যন্ত সৌহাদ্যপূর্ণ সম্পর্ক গড়ে উঠেছিল।  
আনোয়ার চৌধুরী এই প্রতিবেদকের সাথে আলাপকালে  বলেন, চাকুরিতো অনেক করলাম। এবার হয়তো রাজনীতিতে যোগ দেয়ার সুযোগ আসতে পারে। জিজ্ঞেস করলাম কোন পার্টিতে যোগ দেবেন? সরাসরি উত্তর না দিয়ে বললেন, বিভিন্ন দল থেকে আগ্রহ আছে। এর মধ্যে অনুষ্ঠান স্থলে প্রবেশের ডাক পড়ে গেলে আনোয়ার চৌধুরীর সাথে আলাপ আর এগোয় নিই। অপেক্ষা করতে হবে তার পরবর্তী পদক্ষেপ দেখার জন্যে।