Share |

লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নির্বাচন : পথচলা সুন্দর ও সৃষ্টিশীল হোক

বিলেতে বাংলাদেশি কমিউনিটির প্রতিনিধিত্বশীল সংগঠন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের দ্বিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়ে গেল গত রোববার ২৭ জানুয়ারি। তুমুল প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ এ নির্বাচনকে ঘিরে এবার ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনা ছিলো লক্ষ্যণীয়।
দুটি টিমে এবার ২৯ প্রার্থী ভোট লড়াইয়ে নামলেও ক্লাবের বহুদিনের ঐতিহ্য রক্ষা করেই প্রার্থীরা ইতিবাচক প্রচারকাজ চালিয়েছেন। এছাড়া এবারের নির্বাচনী প্রচারে যোগ হয়েছিলো নতুন মাত্রা। দুটি টিমের পক্ষ থেকেই ছিলো চমৎকার ডিজিটাল ক্যাম্পেইন। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এই নির্বাচনী প্রচার সদস্যরা উপভোগ করেছেন বলেই মনে হয়েছে।  
আমরা জানি, ভোটযুদ্ধে উত্তেজনা থাকে, থাকে অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটে যাওয়ার আশঙ্কা। কিন্তু ক্লাবের ঐতিহ্য রক্ষা করেই এবারও খুবই উৎসবমুখর ও সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশে অনুষ্ঠিত হয়েছে নির্বাচন।  
এই উৎসবে যুক্তরাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বাংলা মিডিয়ায় কর্মরত সাংবাদিকরা অংশগ্রহণ করেছেন। ৩১৮ সদস্যের ক্লাবের নির্বাচনে ৩১৬ সদস্যের ভোটদান প্রমাণ করে এই সংগঠনকে তারা কতটা গুরুত্বের সাথে নিয়ে থাকেন। আর এ কারণে এই সংগঠনের নেতৃত্ব নির্বাচনের বিষয়টিও খুবই গুরুত্বপূর্ণ।  
আমরা দেখি, সাধারণত দেশে কিংবা বিদেশে আমাদের বাঙালি সমাজে কোনো সংগঠনের সাধারণ সভা এবং নির্বাচন এলেই নানা সংকট দেখা দেয়। সৌহার্দ্যপূর্ণ পরিবেশ তো দুরের কথা, অতি আগ্রহীদের কল্যাণে দুই পক্ষের বিরোধের খবর এই দেশের মূলশ্রোতেও পৌঁছে যায়। পুলিশ-আদালত পর্যন্ত গড়ায়। সেই হিশেবে বলা যায়, লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাব সুষ্ঠু ও সুন্দর নির্বাচন আয়োজনের নজির সৃষ্টি করেছে বহু আগেই। এবারও সেই ধারাবাহিকতা রক্ষিত হয়েছে।
সেই নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণার পর প্রতিদ্বন্দ্বিতায় বিজিত ও বিজয়ী সভাপতি প্রার্থীসহ দুই পক্ষের প্রার্থীরা একে অন্যকে অভিনন্দন জানিয়েছেন, পরস্পরের সাফল্য কামনা করে সহযোগিতা দানের প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। ফলাফল ঘোষণার পর উপস্থিত সদস্যদের মধ্যে সৌহার্দ্যপূর্ণ আচরণের দৃশ্য ছিলো অভূতপূর্ব।
আমরা আশা রাখতে চাই, লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব হয়ে উঠুক বিশ্ব-বাঙালির প্রাণ, হোক বিশ্বনন্দিত সংগঠন। এই সংগঠনের সুনামের ধারা অব্যাহত রেখেই নিজেদের মধ্যে যেন ভ্রাতৃত্ব-বন্ধন সুদৃঢ় ও অটুট থাকে।  
সেই সঙ্গে প্রত্যাশা, লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের সাংবাদিকরা অপসাংবাদিকতাকে বরাবরই না-বলার ক্ষমতা রাখবেন।  
সবশেষে লন্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের নবনির্বাচিত দায়িত্বশীলদের জন্য শুভকামনা। আমাদের চাইবো, আসছে দুই বছরে তারা ক্লাবকে আরো অনেক এগিয়ে নিয়ে যাবেন। তাদের সকল কাজ ও পথচলা সুন্দর ও সৃষ্টিশীল হোক।