Share |

স্ত্রীর নিন্দায় দুবাই বাদশার কবিতা: তুমি বাঁচো মরো-তাতে কিছু আসে যায় না

লন্ডন, ১ জুলাই : দুই সন্তানকে নিয়ে পালিয়ে দেশ ছেড়ে যাওয়ায় স্ত্রী প্রিন্সেস হায়া বিনতে আল হুসেইনের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন দুবাইয়ের শাসক শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুম (৬৯)। ইন্সটাগ্রামে প্রকাশিত এক কবিতায় তিনি  এমন ক্ষোভ প্রকাশ করেন। এতে এক স্থানে তিনি লিখেছেন- তুমি বেঁচে থাকো বা মরে যাও, তাতে আমার কিছু আসে যায় না। 
সম্প্রতি ছেলে জায়েদ (৭) ও মেয়ে আল জলিলাকে (১১) সঙ্গে নিয়ে দুবাই থেকে পালিয়ে যান প্রিন্সেস হায়া। তিনি লন্ডনে রয়েছেন বলে জানাচ্ছে পশ্চিমা গণমাধ্যমগুলো। তবে এখানে তিনি আত্মগোপন করে আছেন। গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, তিনি জার্মানিতে রাজনৈতিক আশ্রয় চেয়েছেন। সূত্রগুলো বলছে, তার আবেদন নৈতিকতার কারণে অনুমোদন দিয়েছে জার্মানি। স্বামী শেখ মোহাম্মদ বিন রশিদ আল মাকতুমের কাছ থেকে তিনি বিচ্ছেদ চেয়েছেন। জবাবে কড়া ভাষায় কবিতা লিখেছেন বিন রশিদ। তাতে তিনি স্ত্রী প্রিন্সেস হায়া’কে বিশ্বাসঘাতক বলে আখ্যায়িত করেছেন। উল্লেখ্য, প্রিন্সেস হায়া হলেন জর্ডানের প্রয়াত বাদশার মেয়ে ও বর্তমান বাদশার বোন। তার স্বামী বিন রশিদ নিজভূমে একজন কবি বলে পরিচিত। বিভিন্ন উপলক্ষে তিনি কবিতা লিখে থাকেন। তবে তার লেখা নিয়ে ব্যক্তিগতভাবে অনেক হাসি তামাশা করেন। কিন্তু প্রকাশ্যে তার সমালোচনা করার সাহস নেই কারো। স্ত্রী পালিয়ে যাওয়ায় ক্ষোভকেও তিনি নতুন কবিতায় তুলে এনেছেন। ইংরেজিতে এ কবিতার শিরোনাম ‘ইউ লিভড অ্যান্ড ইউ ডাইড’। আরবিতে লেখা এ কবিতায় তিনি বলেছেন, তুমি বিশ্বাসঘাতক। তুমি সবচেয়ে মূল্যবান বিশ্বাসের সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছো। তোমার পরিকল্পনা প্রকাশ হয়ে গেছে। তোমার মিথ্যা বলার দিন শেষ হয়ে গেছে। আমরা কোথায় ছিলাম এবং তুমি এখন কোথায় তা এখন আর কোনো বিষয়ই নয়। এতে নিন্দা জানিয়ে আরো বলা হয়েছে, আমার কাছে তোমার আর কোনো স্থান নেই। যার সঙ্গে থাকতে পছন্দ কর, যাও তার কাছে। তোমার জন্য সেটা মঙ্গল হোক। তুমি বেঁচে থাকো অথবা মরো আমি তাতে তোয়াক্কা করি না।