Share |

বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হামজা

লন্ডন, ০৭ সেপ্টেম্বর : মোহাম্মদ সালাহকে ট্যাকল করে হলুদ কার্ড দেখেছিলেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত হামজা চৌধুরী। ফাউলটিকে কেন্দ্র করে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হতে হচ্ছে এখন তাঁকে।  প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে অ্যানফি?ে গত শুক্রবার লিভারপুলের মুখোমুখি হয়েছিল লেস্টার সিটি। উত্তেজনা ছড়ানো ম্যাচে যোগ করা সময়ের পেনা?ি গোলে ২-১ ব্যবধানে হেরে মাঠ ছাড়ে লেস্টার। ম্যাচ শেষে উত্তেজনা কমেনি, দুদলের   খেলোয়াড়েরা ধাক্কাধাক্কি করেছেন সে সময়ে। ঘটনা এখানেই শেষ হয়নি, ম্যাচের একটি ট্যাকলকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বর্ণবাদের শিকার হতে হয়েছে লেস্টারের গুরুত্বপূর্ণ মিডফি?ার হামজা চৌধুরীকে। বিষয়টি এত দূর গড়িয়েছে যে আইনি ব্যবস্থার পথে হাঁটছে লেস্টার।
ম্যাচের শেষের দিকে লিভারপুল তারকা মোহাম্মদ সালাহকে একটি স্পাইডিং ট্যাকল করেন বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত এই মিডফি?ার। বাঁ পায়ের গোড়ালিতে আঘাত পেয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন মিসরীয় ফরোয়ার্ড। গুরুতর ফাউল হওয়ায় হামজাকে হলুদ কার্ড দেখানো হয়েছিল। এর পর শুরু হয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বর্ণবাদী মন্তব্য। ফেসবুক, টুইটারের মতো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বর্ণবাদী আক্রমণের শিকার হতে হয়। তাঁকে উদ্দেশ্য করে অনেকে ‘বানর, গুহায় ফিরে যাও’ বলে মন্তব্য করেছেন। এক লিভারপুল সমর্থক মন্তব্য করেছেন, ‘প্রিমিয়ার লিগে আমার দেখা নোংরা খেলোয়াড় হামজা চৌধুরী। আশা করি এই পাকি বাংলাদেশে ফেরত যাবে।’
বিষয়টি এত দূর গড়িয়েছে দেখে ইতিমধ্যে পুলিশের সঙ্গে কথা বলেছেন ক্লাব কর্তৃপক্ষ। ক্লাবের এক মুখপাত্র জানান, ‘ওই ধরনের মন্তব্যের কথা আমরা পুলিশকে জানিয়েছি। ফুটবলে বা সমাজে কোনো বর্ণ বৈষম্যের সুযোগ নেই। ওই ঘৃণিত কাজের জন্য আমরা সর্বোচ্চ পদক্ষেপ নেব।’ অন্যদিকে হামজার ট্যাকল নিয়ে সমালোচনা করেছেন লিভারপুল কোচ ইয়ুর্গেন ক্লপ, ‘এটা কেমন ধরনের ট্যাকল আমি বুঝতে পারছি না। এটা অত্যন্ত বিপজ্জনক। এমন পরিস্থিতে হামজাকে মাথা ঠান্ডা রাখতে হবে। ওর এমন ট্যাকল এটাই প্রথম নয়।’ইতোমধ্যে ম্যানচেস্টার সিটির সাথে ১-১ গোলে ড্র, আর্সেনালের সাথে ৩-০ গোলের জয়ে মিডফি?ার হিসেবে যে ভূমিকা রাখেন, তা দলে জায়গা পাকা করতে সাহায্য করে। চলতি মৌসুমে প্রতি ম্যাচেই মাঠে নামছেন হামজা চৌধুরি।
ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে ৮ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে ৩ নম্বরে অবস্থান করছে লেস্টার সিটি।