Share |

সাংবাদিক নজরুল ইসলাম বাসনের মাতার ইন্তেকাল : লণ্ডন বাংলা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের শোক

লণ্ডন, ১৩ এপ্রিল: লণ্ডন বাংলা প্রেস ক্লাবের প্রতিষ্ঠাতা সাধারণ সম্পাদক, সাপ্তাহিক সুরমার সাবেক সম্পাদক নজরুল ইসলাম বাসনের মাতা কইতুন নেসা ইন্তেকাল করেছেন। ইন্নালিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন। গত ১২ এপ্রিল, মঙ্গলবার ইংল্যাণ্ডের লুটন শহরে ডান্সটেবল হাসপাতালে দুপুর ১২টা ১৫ মিনিটে তিনি শেষ নিঃশ্বাস করেন। তাঁর বয়স হয়েছিল ৯৩ বছর। তিনি বার্ধক্যজনিত বিভিন্ন রোগে ভূগছিলেন।
মৃত্যুতে লণ্ডন বাংলা প্রেস ক্লাব নেতৃবৃন্দ গভীর শোক প্রকাশ করেছেন। ক্লাব সভাপতি মোহাম্মদ এমদাদুল হক চৌধুরী, সাধারণ সম্পাদক তাইসির মাহমুদ ও কোষাধ্যক্ষ সালেহ আহমেদ এক শোকবার্তায় মরহুমার শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি গভীর সহানুভূতি ও সমবেদনা জ্ঞাপন করেন। তাঁরা মরহুমার রুহের মাগফিরাত কামনার পাশাপাশি স্বজনদের ধৈর্য্য ধারণের শক্তিদানের জন্য মহান সৃষ্টিকর্তার কাছে দোয়া করেন।
উল্লেখ্য, অবসরপ্রাপ্ত সিলেট জেলা নাজির প্রয়াত জাহিদ বখশের সহধর্মিনী কইতুন নেছার বাংলাদেশে গ্রামের বাড়ি ছিলো সিলেট জেলার বালাগঞ্জ উপজেলার করনশি গ্রামে।
বৃহস্পতিবার ১৪ এপ্রিল ব্যারী পার্ক মসজিদে জোহরের নামাজের পর মরহুমার নামাজে জানাজা অনুষ্ঠানের পর তাকে স্থানীয় ‘ভেইল সিমেট্রি’-তে দাফন করা হয়েছে।
নজরুল ইসলাম বাসনের মাতার ইন্তেকালে আরো শোক জানিয়েছেন লন্ডন বাংলা প্রেসক্লাবের ফাউন্ডার প্রেসিডেন্ট মহিব চৌধুরী, চ্যানেল এস-এর চেয়ারম্যান আহমদ উসসামাদ চৌধুরী, সাপ্তাহিক পত্রিকার প্রধান সম্পাদক মোহাম্মদ বেলাল আহমদ, বিসিএর সাবেক প্রেসিডেন্ট পাশা খন্দকার, প্রেসিডেন্ট এম এ মুনিম, জাস্ট হ্যাল্প-এর ফাউন্ডার চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান, বাংলাদেশ সেন্টারের ভাইস চেয়ারম্যান মহিবুর রহমান, যুক্তরাষ্ট্র থেকে ডা. জিয়াউদ্দিন আহমদ, রাহাত হোসেন নাজু, ডা. মালেকা বেগম, কর্ণেল আবদুস সালাম বিপি, রাশেদা কে চৌধুরী, মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান সাঈম, আবদুর রাকিব ও ডা. ফাতেমা আহমদ।
নজরুল ইসলাম বাসন তাঁর মায়ের রুহের মাগফেরাতের জন্য সকলের দোয়া চেয়েছেন।