‘টাওয়ার হ্যামলেটসে আবারো বাঙালি যুবক খুন’- শিরোনামের সংবাদ বিচলিত করেছে পূর্ব লন্ডন তথা ব্রিটেনের বাংলাদেশি কমিউনিটির সর্বস্তরের

দীর্ঘ এক মাস পর রমজানের সংযম সাধনার পর পবিত্র ঈদুল ফিতর সমাগত। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে আগামী মঙ্গল অথবা বুধবার ব্রিটেনের মুসলমানরা পালন করবেন এই

চার দশক আগে এই মে মাসে বর্ণবাদীদের নৃশংস আক্রমণে প্রাণ হারান পোশাক শ্রমিক  আলতাব আলী। নৃশংস এই হত্যাকাণ্ড কমিউনিটিতে নজীরবিহীন জাগরণ সৃষ্টি

মহান বার্তা নিয়ে আবার বছর ঘুরে হাজির হচ্ছে মাহে রমজান। আরবী সনের নবম মাস রহমত-বরকত-নাজাতের রমজান শুরু হয়েছে। প্রচলিত হিজরি দ্বিতীয় সনে এই

নিউজিল্যাণ্ডের মসজিদে ঘটে যাওয়া নজীরবিহীন সন্ত্রাসী ঘটনার ধাক্কা সামলে উঠতে পারেনি বিশ্ববাসী। গত মার্চে ক্রাইস্টচার্চের দুটি মসজিদে বন্দুকধারী

সোনাগাজীর মাদ্রাসা শিক্ষার্থী নুসরাত জাহান রাফিকে অধ্যক্ষ কর্তৃক যৌন হয়রানি এবং পরে আগুনে পুড়িয়ে মারা বাংলাদেশে সাম্প্রতিক সময়ের সবচে লোমহর্ষক

বাঙালির জীবনে নতুন বার্তা নিয়ে বাংলা নতুন বছরের আগমন। বাঙালি যেখানেই থাকুক না কেন- এদিন নতুনের আহ্বানে উজ্জীবিত হয়ে ওঠে। অতীতের না-পাওয়ার বেদনা

ব্রিটেনের ব্রেক্সিটের বিরুদ্ধে মিছিল ও বিক্ষোভ প্রদর্শন  করেছে লন্ডনে লাখ লাখ মানুষ গত ২৩ মার্চ।
‘পুট ইট টু দ্য পিপল’

উনিশশ একাত্তরের ২৬ মার্চ বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের সূচনা হয়। এদিনটি বাঙালি জীবনে অনন্য ও ঐতিহাসিক। ২৫ মার্চ পাক হানাদার বাহিনি গভীর রাত্রে নিরীহ