আপনি কি জানেন, ডায়াবেটিস দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ হতে পারে?

“আপনার যদি ডায়াবেটিস থেকে থাকে তাহলে আপনি ডায়াবেটিসের কারণে সৃষ্ট চোখের রোগ ‘ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি’তে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন।”

ডাঃ এভলিন মেনসাহ
ক্লিনিক্যাল প্রধান (লিড), অপথালমোলজি
লণ্ডন নর্থ ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি হেলথকেয়ার এনএইচএস ট্রাস্ট ।

ডায়াবেটিস থাকলে চোখের স্ক্রীনিং করানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ

“আমি দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছি বলে যখন ধরা পড়ল, তখন তা আমার মধ্যে প্রবল প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। কেউই তাঁর দৃষ্টিশক্তি হারাতে চায় না। আমি ছয় মাস কেঁদেছি।”

বার্নাডেট ওয়ারেন (৫৫)
সাবেক শিক্ষক, সারে ।

স্ক্রিনিং প্রাথমিক লক্ষণগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করে

“নিয়মিত পরীক্ষা-নীরিক্ষা এবং স্ক্রিনিংয়ে অংশ নিলে তা মানুষের শরীরে জটিলতা সৃষ্টির ঝুঁকি অথবা প্রাথমিক লক্ষণগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করবে। তখন এসব ব্যাপারে আমরা কিছু করতে সক্ষম হবো।

ডা. ভরন কুমার
জিপি, স্লাও, বার্কশায়ার

শনিবার, ২৫ মে ২০২৪

স্বাস্থ্য

ডায়াবেটিস আছে? আপনার স্বাস্থ্যের দিকে যেভাবে নজর রাখবেন

১৭ এপ্রিল ২০২৪ ৫:৪৫ অপরাহ্ণ | স্বাস্থ্য

আপনি কি জানেন, ডায়াবেটিস দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ হতে পারে? এ ব্যাপারে লণ্ডন নর্থ ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি হেলথকেয়ার এনএইচএস ট্রাস্টের চক্ষুবিদ্যা (অপথালমোলজির)-এর ক্লিনিক্যাল প্রধান (লিড) ডাঃ এভলিন মেনসাহ ব্যাখ্যা করে বলেন, “যদি আপনার ডায়াবেটিস থেকে থাকে তাহলে আপনি ডায়াবেটিসের কারণে সৃষ্ট চোখের রোগ ‘ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি’তে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন।”

স্ক্রীনিং আপনার চোখ সুরক্ষায় সাহায্য করে

ডায়াবেটিস আমাদের রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা বাড়িয়ে দেয় যা ‘ব্লাড সুগার’ নামেও পরিচিত। ডা. এভলিন মেনসাহ বলেন, “উচ্চমাত্রার ব্লাড সুগার শরীরে দীর্ঘ সময়ের থাকলে তা রক্তনালী, ধমনী, শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ ও কলা (টিস্যু) এবং চোখের পিছনে থাকা ‘রেটিনা’ ক্ষতিগ্রস্ত করতে পারে।” যখন আমাদের চোখের রক্তনালীগুলি আক্রান্ত হয় তখন তা রেটিনার ক্ষতি করতে পারে। আমাদের দেখতে পাওয়ার কাজে সহায়তাকারী রেটিনার একটি সুস্থ রক্ত ​​​​প্রবাহের প্রয়োজন হয়।

“ডায়াবেটিস আছে এমন সবাই যে এতে আক্রান্ত হবেন বিষয়টি এমন নয়। কিন্তু এর চিকিৎসা না করালে এটি দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ হতে পারে। এনএইচএস থেকে বিনামূল্যে নিয়মিত ‘স্ক্রীনিং’ করানোর অর্থ হচ্ছে- আমরা এটি সনাক্ত করে প্রাথমিক অবস্থায় চিকিৎসা দিয়ে আপনার দৃষ্টিশক্তি রক্ষার পাশাপাশি এর ভবিষ্যতের ক্ষয়ক্ষতি রোধ বা গতি কমাতে পারি।”

ডায়াবেটিসের লক্ষণ ও উপসর্গ কী তা আপনি জানেন?

আমি মনে করেছিলাম আমার নতুন চশমা দরকার’

সারের বাসিন্দা ৫৫ বছর বয়সী বার্নাডেট ওয়ারেন। তাঁর টাইপ-১ ডায়াবেটিস ধরা পড়ার ২০ বছর পর বিগত ২০১৬ সালে তিনি দৃষ্টি প্রতিবন্ধী হিশেবে নিবন্ধিত হয়েছিলেন।

সারের বাসিন্দা ৫৫ বছর বয়সী বার্নাডেট ওয়ারেন।

বার্নাডেট বলেন, “ডায়াবেটিস রয়েছে এমন ব্যক্তিদের চোখের স্ক্রীনিং করানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ। কারণ সাধারণত এটির কোন উপসর্গ আপনার থাকবে না। ফলে, আপনার শরীরে ক্ষতিকর কিছু একটা হয়তো ঘটে চলেছে কিন্তু আপনি তা বুঝতে পারছেন না।”

এই ছবিতে দুই সন্তানের জননী ইতোমধ্যেই ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথির প্রথম ধাপে আক্রান্ত ছিলেন যেটির জন্য কোনো চিকিৎসা লাগেনি। তিনি যখন লক্ষ্য করলেন তাঁর পড়তে অসুবিধা হচ্ছে, তখন কেবল নতুন চশমা দরকার ভেবে তিনি চক্ষু পরীক্ষার জন্য অপটিশিয়ানের সাথে অ্যাপয়েন্টমেন্ট করেন। কিন্তু অপটিশিয়ান তাঁর চোখের অবস্থার পরিবর্তন দেখতে পান এবং জরুরিভিত্তিতে চক্ষু বিশেষজ্ঞ (অপথালমোজিস্ট)-এর সাথে অ্যাপয়েন্টমেন্টের ব্যবস্থা করে দেন। চক্ষু বিশেষজ্ঞ তখন তাঁর ‘ডায়াবেটিক ম্যাকুলার এডিমা’ নামে পরিচিত একটি গুরুতর চোখের জটিলতা রয়েছে বলে সনাক্ত করেন।

“আমার রক্তে ‘ব্লাড সুগার’ অর্থাৎ শর্করার মাত্রা সে সময় যেকোনো সময়ের তুলনায় সবচেয়ে ভালো ছিল। কিন্তু এখন আমি খুব একটা ভালভাবে দেখতে পাচ্ছি না। আমি মনে করেছিলাম, আমার শুধু পড়ার জন্য নতুন চশমা দরকার এবং আমি ব্যাপারটি এভাবেই ফেলে রেখেছিলাম।

“আমি দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছি বলে যখন ধরা পড়ল, তখন তা আমার মধ্যে প্রবল প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। কেউই তাঁর দৃষ্টিশক্তি হারাতে চায় না। আমি ছয় মাস কেঁদেছি।”

“আমার নিজের জন্য, আমার স্বামী-সন্তান এবং আশপাশে থাকা অন্যদের খাতিরে আমি এটিকে আমার জীবনে একটি ইতিবাচক বিষয় করে তুলেছি। এটা ছিলো কঠিন কাজ। কিন্তু এজন্য যথেষ্ট সাহায্য-সমর্থনও পেয়েছি।”

কাদের স্ক্রীনিংয়ে অংশগ্রহণ করা উচিত?

ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ১২ বছর বা তার বেশি বয়সী প্রত্যেককে প্রতি এক থেকে দুই বছরে একবার করে স্ক্রিনিং অ্যাপয়েন্টমেন্টে আমন্ত্রণ জানানো হয়। আপনাকে কত ঘন ঘন স্ক্রিনিং অ্যাপয়েন্টমেন্টে যেতে ডাকা হবে তা নির্ভর করবে আপনার বিগত দুটি স্ক্রীনিং পরীক্ষার ফলাফলের ওপর।

ডা. মেনসাহ বলছেন, “ব্যায়াম করা, ধূমপান ত্যাগ এবং রক্তচাপ ও শরীরে কোলেস্টেরলের মাত্রা স্বাস্থ্যকর পর্যায়ে রাখলে তা ডায়াবেটিসের কারণে সৃষ্ট চোখের রোগ এবং এবং অন্যান্য সমস্যার ঝুঁকি কমাতে সাহায্য করে।”

“আপনার ডায়াবেটিস দীর্ঘকাল ধরে থাকুক কিংবা না-ই থাকুক ১২ বছর বয়স থেকে ‘ডায়াবেটিক আই স্ক্রিনিং’ করানো প্রয়োজন।”

লণ্ডন নর্থ ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি হেলথকেয়ার এনএইচএস ট্রাস্টের চক্ষুবিদ্যা (অপথালমোলজির)-এর ক্লিনিক্যাল প্রধান (লিড) ডাঃ এভলিন মেনসাহ।

“দক্ষিণ এশীয় এবং কৃষ্ণাঙ্গ আফ্রিকান বা ক্যারিবিয়ান বংশোদ্ভূত মানুষের টাইপ-২ ডায়াবেটিস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি এবং তা প্রায়শই অল্প বয়সে। এর অর্থ হল- তাদেরকে এই শারীরিক অবস্থা নিয়ে জীবনের দীর্ঘ কাল কাটাতে হয় এবং এর ফলে তারা তাদের জীবনের দীর্ঘ সময় ধরে নানা জটিলতায় আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে থাকেন।”

“এছাড়া ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি রোগে আক্রান্ত হওয়ার ক্ষেত্রেও তারা বেশি সংবেদনশীল হতে পারেন- এমন প্রমাণ রয়েছে ৷ এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার বেলায় নানা পার্থক্য কেনো দেখা যায় তার উত্তর জটিল। তাই আপনি যদি ‘ডায়াবেটিক আই স্ক্রীনিং-এর জন্য উপযুক্ত হয়ে থাকেন তাহলে দয়া করে এই পরীক্ষার জন্য আমাদের কাছে আসুন। কারণ, এটি আপনার দৃষ্টিশক্তিকে সুরক্ষা দিতে পারে৷” “চোখের ভালো যত্ন নেওয়ার অর্থ হচ্ছে নিয়মিত চোখের ডাক্তারের কাছে যাওয়াও। আপনি যদি আপনার দুই ‘ডায়াবেটিক আই স্ক্রীনিং’ অ্যাপয়েন্টমেন্টের মাঝখানে কোনো পরিবর্তন খেয়াল করেন তাহলে পরামর্শের জন্য সাথে সাথে আপনার চক্ষু বিশেষজ্ঞ (অপটোমেট্রিস্ট) অথবা অপটিশিয়ানের সাথে যোগাযোগ করুন।”

ডায়াবেটিস নিয়েও ভালভাবে বাঁচুন

বার্নাডেট একজন সাবেক শিক্ষক। তিনি ডায়াবেটিসের কারণে দৃষ্টিশক্তি হারানো মানুষের জন্য একটি সহায়তা গোষ্ঠী (সাপোর্ট গ্রুপ) পরিচালনা করেন। তিনি বলেন, “আমাদের যখন ডায়াবেটিস ধরা পড়ে, তখন এর নানা জটিলতা সম্পর্কে আমাদেরকে অনেক কিছু বলা হয় যা ভীতিকর মনে হতে পারে।

“এসব জটিলতা এড়াতে আমাদের কী কী অবশ্যই করতে হবে সেসব আমাদের বলে দেয়া হয়। ব্যাপারটি এমন দাঁড়ায় যে আপনার মনে হতে পারে- আপনি এসব নিজের উপর টেনে এনেছেন। কিন্তু এরকম ভাবনা মনে ঠাঁই দেয়া ঠিক নয়, আমাদের এই নেতিবাচক চিন্তা থেকে বেরিয়ে আসতে হবে।”

এরসাথে একমত পোষণ করেন বার্কশায়ারের স্লাওতে কর্মরত জিপি ডা. ভরন কুমার।

ডা. ভরন কুমার, জিপি, স্লাও বার্কশায়ার।

তিনি বলেন, “ডায়াবেটিস থাকলে তা দুর্বহ মনে হতে পারে যা বিশেষ করে যখন নানা জটিলতা দেখা দেয় তখন আপনার সুস্থ থাকার বিষয়টিকে প্রভাবিত করতে পারে। তাই এসব বিষয় মনে বেশি চাপ সৃষ্টি করে থাকলে তা বলতে ভয় পাবেন না।

“আপনার সহায়তায় রয়েছি আমরা। ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী যদি আপনি ওষুধ সেবন করেন এবং রক্তে ব্লাড সুগারের মাত্রা পরীক্ষা করান তাহলে আপনার রক্তে ব্লাড সুগারের নিরাপদ ও সামঞ্জস্যপূর্ণ মাত্রা বজায় রাখতে এবং জটিলতা সৃষ্টির ঝুঁকি কমাতে আপনাকে সাহায্য করতে আমরা একসাথে কাজ করতে পারি।”

বার্নাডেট আরো বলেন, “মানুষ খারাপ খবর শুনতে ভয় পায়। কিন্তু স্ক্রীনিং এবং ডায়াবেটিক সংক্রান্ত স্বাস্থ্য পরীক্ষা হচ্ছে একটি ইতিবাচক অভিজ্ঞতা। কারণ, যদি কোনো সমস্যা ধরা পড়ে তাহলে তার মানে হলো আপনি এজন্য চিকিৎসা পেতে পারেন। আর আজকাল অনেক নতুন চিকিৎসা ও ওষুধ পাওয়া যাচ্ছে।”

লণ্ডনের গাইজ এণ্ড সেন্ট থমাসেস এনএইচএস ফাউণ্ডেশন ট্রাস্টের এই ভিডিওচিত্রে দেখানো হয়েছে আপনার চোখের স্ক্রীনিং অ্যাপয়েন্টমেন্ট থেকে আপনি কী প্রত্যাশা করেতে পারেন। এছাড়া অনলাইনে আরো তথ্য রয়েছে NHS.uk ঠিকানায়।

টাইপ-১ এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য
স্ক্রীনিং এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষাগুলোর মধ্যে অন্তর্ভূক্ত রয়েছে:

• ডায়াবেটিক আই স্ক্রিনিং

• আপনার রক্তে ব্লাড সুগার কতটা ভালোভাবে নিয়ন্ত্রিত তা পরিমাপ করতে প্রতি ৩ থেকে ৬ মাস পর পর রক্ত ​​পরীক্ষা

• আপনার পা সুস্থ রাখতে বছরে একবার পায়ের পরীক্ষা-নিরীক্ষা

• বার্ষিক পর্যালোচনা (রিভিউ) এবং স্বাস্থ্য পরীক্ষা যাতে আপনার ওজন, রক্তচাপ এবং ডায়াবেটিসের সাথে সম্পর্কিত অন্যান্য অসুস্থতার ঝুঁকি ইত্যাদি পরীক্ষা অন্তর্ভুক্ত থাকবে।

ডা. কুমার বলেন: “এসব নিয়মিত পরীক্ষা-নীরিক্ষা এবং স্ক্রিনিংয়ে অংশ নিলে তা মানুষের শরীরে জটিলতা সৃষ্টির ঝুঁকি অথবা প্রাথমিক লক্ষণগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করবে। তখন এসব ব্যাপারে আমরা কিছু করতে সক্ষম হবো। তবে এই পরীক্ষা-নীরিক্ষাগুলির মাঝখানের সময়ে আপনি অসুস্থ হলে, কোনো আঘাত পেয়ে থাকলে যা নিরাময় হচ্ছে না কিংবা বারবার সংক্রমণে আক্রান্ত হলে আপনার রুটিন অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য অপেক্ষা না করে দয়া করে আপনার জিপি প্র্যাক্টিস বা বিশেষজ্ঞ দলের সাথে কথা বলুন।”

প্রয়োজনে অ্যাপয়েন্টমেন্টের জন্য অপেক্ষা না করে দয়া করে জিপি প্র্যাক্টিস বা বিশেষজ্ঞ দলের সাথে কথা বলুন।”

“আর ডায়াবেটিস যেহেতু আপনাকে ফ্লু এবং কোভিড-১৯ বা হাম (মিজেলস)-এর মতো সচরাচর ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়ার ঝুঁকিতে ফেলে দেয়, তাই আমার পরামর্শ হলো- আপনার টিকা দেওয়ার বিষয়টি হালনাগাদ আছে কিনা তা যাচাই করে নিন।”

আরো সহায়তা

• আপনি যদি আপনার ডায়াবেটিসের জন্য ওষুধ খেয়ে থাকেন তাহলে ‘মেডিক্যাল এক্সাম্পশন সার্টিফিকেট’-এর মাধ্যমে আপনি বিনামূল্যে প্রেসক্রিপশন পাওয়ার উপযুক্ত। NHS ‘হেল্প উইথ হেলথ কস্ট’ হেল্পলাইনে 0300 330 134 নম্বরে যোগাযোগ করুন।

• দৃষ্টিশক্তি হারানো ব্যক্তিরা RNIB ‘হেল্পলাইনে’ 0303 123 9999 নম্বরে ফোন বা helpline@rnib.org.uk ঠিকানায় ইমেইল করুন অথবা বা RNIB-এর ‘সাইটলাইন ডিরেক্টরি’ খুঁজে সেখানে স্থানীয়ভাবে প্রদত্ত সহায়তার জন্য যোগাযোগ করুন।

• যাদের ‘ডায়াবেটিক ম্যাকুলার এডিমা’ রয়েছে তারা ‘ম্যাকুলার সোসাইটি’র ‘হেল্পলাইনে’ 0300 303 0111 নম্বরে ফোন করুন।

• ডায়াবেটিস নিয়ে কীভাবে জীবনযাপন করবেন সে সম্পর্কে সাহায্য বা পরামর্শের জন্য ‘ডায়াবেটিস ইউকে’র ‘হেল্পলাইনে’ ফোনে 0345 123 2399 নম্বরে যোগাযোগ করুন অথবা info@diabetes.org.uk ঠিকানায় ইমেইল করুন।

• দৃষ্টিশক্তি হারানোর ক্ষেত্রে আরও তথ্যের জন্য NHS.uk ওয়েবসাইটটি দেখুন কিংবা ‘ডায়াবেটিক আই স্ক্রীনিং’ সম্পর্কে জানতে, ধূমপান ত্যাগ করতে অথবা মদ্যপান (অ্যালকোহল) কমিয়ে আনতে সহায়তার জন্য সংশ্লিষ্ট লিঙ্কগুলো দেখূন।

আপনি কি জানেন?

ডায়াবেটিস ইউকে’র এক হিসাব অনুসারে, যুক্তরাজ্যে ৮৫০, ০০০ ব্যক্তির হয়তো ডায়াবেটিস রয়েছে যা তারা জানেন না। এক্ষেত্রে প্রায়শই উপসর্গ থাকে না, তবে এর লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে:

• খুব তৃষ্ণার্ত অনুভব করা

• স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি বার বিশেষ করে রাতে প্রস্রাব করা

• খুব ক্লান্ত বোধ করা

• ওজন কমে যাওয়া এবং শরীরের পেশী হ্রাস পাওয়া

• ক্ষত বা সংক্রমণ নিরাময় না হওয়া অথবা ঘন ঘন ঘা হওয়া

• দৃষ্টি ঝাপসা হয়ে যাওয়া

যদি আপনার নিজের (অথবা আপনার পরিচিত কারো) উপরের যেকোনো একটি হয়ে থাকে অথবা আপনি যদি জানেন যে আপনি ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে আছেন তাহলে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব আপনার জিপির সাথে যোগাযোগ করুন।

টাইপ-১ ডায়াবেটিস হলো- যে অবস্থায় শরীর ইনসুলিন তৈরি করতে পারে না। ইনসুলিন হচ্ছে একটি হরমোন যা রক্তে গ্লুকোজের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ চালনা। এটি সাধারণত শিশুকালেই সনাক্ত হয়। তবে এই অবস্থা যে কোনও বয়সে দেখা দিতে পারে।

টাইপ-২ ডায়াবেটিস হচ্ছে এমন একটি অবস্থা যেখানে শরীর পর্যাপ্ত পরিমাণ ইনসুলিন তৈরি করে না অথবা বা ইনসুলিন সঠিকভাবে ব্যবহার করতে পারে না। এটি আমাদের জীবনযাপনের ধারা এবং শরীরের ওজনের সাথে সম্পর্কিত হতে পারে এবং এটি প্রতিরোধযোগ্য।

গর্ভকালীন (জেস্টেশনাল) ডায়াবেটিস মেলিটাস গর্ভাবস্থায় সৃষ্টি হতে পারে যখন শরীর পর্যাপ্ত পরিমাণ ইনসুলিন তৈরি করতে পারে না। এই অবস্থা সাধারণত সন্তান জন্মের পরে ঠিক হয়ে যায়। তবে পরবর্তীতে গর্ভাকালীন অবস্থায় এটি আবার ফিরে আসার এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিসে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি থেকে যায়। আপনি ডায়াবেটিসের ঝুঁকিতে আছেন কিনা তা ‘ডায়াবেটিস ইউকে-এর নো ইয়োর রিস্ক টুল’ ব্যবহার করে জেনে নিন।

আরও পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে পদদলিত করে উল্টো পথে চলছে বাংলাদেশ

মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে পদদলিত করে উল্টো পথে চলছে বাংলাদেশ

লণ্ডনে সিপিবি’র জনসভায় মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম সারওয়ার-ই আলম ♦ লণ্ডন, ৪ এপ্রিল: বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)-এর প্রাক্তন সভাপতি ও বর্তমান সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে পদদলিত করে উল্টো পথে চলছে বাংলাদেশ।...

স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রতিবাদের মুখে গ্রেটার ম্যানচেস্টরের রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ে ঠাঁই হলো বাংলার

স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রতিবাদের মুখে গ্রেটার ম্যানচেস্টরের রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ে ঠাঁই হলো বাংলার

পত্রিকা প্রতিবেদন ♦ লণ্ডন, ২৫ মার্চ: স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রবল প্রতিবাদের মুখে রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ের স্বাগতবার্তায় অবশেষে বাংলা যুক্ত করা হয়েছে। অন্যান্য ভাষার সাথে বাংলায় ‘স্বাগতম’ লেখাটিও এখন সেখানে শোভা পাচ্ছে।  কাউন্সিল কার্যালয়ের...

এভারেস্ট জয়ী আকি রহমানের নতুন পর্বত-অভিযান

এভারেস্ট জয়ী আকি রহমানের নতুন পর্বত-অভিযান

বিশ্বের ১৪টি পর্বতশৃঙ্গ জয় করে বিপন্নদের জন্য সংগ্রহ করতে চান ১.৫ মিলিয়ন পাউণ্ড ইব্রাহিম খলিল ♦ লণ্ডন, ২৪ মার্চ: বিশ্বের বিপদসংকুল ১৪টি উচুঁ পর্বত আরোহণের নতুন অভিযানে নেমেছেন এভারেস্ট জয়ী আকি রহমান। এই পর্বত-অভিযানের মাধ্যমে তিনি তহবিল সংগ্রহ করতে চান ১ দশমিক ৫...

ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দেয়া মার্কিন সেনা অ্যারণ মারা গেছেন

ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দেয়া মার্কিন সেনা অ্যারণ মারা গেছেন

জীবন দিয়ে গাজায় গণহত্যার প্রতিবাদ পত্রিকা ডেস্ক ♦ লণ্ডন, ২৬ ফেব্রুয়ারি: ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দিয়ে দুনিয়াব্যাপী আলোড়ন তোলা মার্কিন সেনা অ্যারণ বুশনেল অবশেষে মারা গেছেন।  এর আগে গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি...

গাজা নিয়ে নিজস্ব নীতির সমালোচনা ইউরোপ-আমেরিকার ৮০০ সরকারি কর্মকর্তার

গাজা নিয়ে নিজস্ব নীতির সমালোচনা ইউরোপ-আমেরিকার ৮০০ সরকারি কর্মকর্তার

পত্রিকা ডেস্ক ♦ লণ্ডন, ০৫ ফেব্রুয়ারি: ফিলিস্তিনের গাজায় আন্তর্জাতিক আইনের ‘গুরুতর লঙ্ঘন’ হচ্ছে। আর এ পরিস্থিতিতে পশ্চিমা দেশগুলোর সরকার কিছুই করতে পারছে না। গাজা নিয়ে নিজ নিজ সরকারের নীতির সমালোচনা করে এমন কথাই বলেছেন পশ্চিমা দেশগুলোর আট শতাধিক সরকারি কর্মকর্তা।...