আপনি কি জানেন, ডায়াবেটিস দৃষ্টিশক্তি হারানোর কারণ হতে পারে?

“আপনার যদি ডায়াবেটিস থেকে থাকে তাহলে আপনি ডায়াবেটিসের কারণে সৃষ্ট চোখের রোগ ‘ডায়াবেটিক রেটিনোপ্যাথি’তে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিতে আছেন।”

ডাঃ এভলিন মেনসাহ
ক্লিনিক্যাল প্রধান (লিড), অপথালমোলজি
লণ্ডন নর্থ ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটি হেলথকেয়ার এনএইচএস ট্রাস্ট ।

ডায়াবেটিস থাকলে চোখের স্ক্রীনিং করানো খুবই গুরুত্বপূর্ণ

“আমি দৃষ্টিশক্তি হারিয়েছি বলে যখন ধরা পড়ল, তখন তা আমার মধ্যে প্রবল প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে। কেউই তাঁর দৃষ্টিশক্তি হারাতে চায় না। আমি ছয় মাস কেঁদেছি।”

বার্নাডেট ওয়ারেন (৫৫)
সাবেক শিক্ষক, সারে ।

স্ক্রিনিং প্রাথমিক লক্ষণগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করে

“নিয়মিত পরীক্ষা-নীরিক্ষা এবং স্ক্রিনিংয়ে অংশ নিলে তা মানুষের শরীরে জটিলতা সৃষ্টির ঝুঁকি অথবা প্রাথমিক লক্ষণগুলি সনাক্ত করতে সাহায্য করবে। তখন এসব ব্যাপারে আমরা কিছু করতে সক্ষম হবো।

ডা. ভরন কুমার
জিপি, স্লাও, বার্কশায়ার

বুধবার, ২৪ জুলাই ২০২৪

প্রধান খবর

মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে পদদলিত করে উল্টো পথে চলছে বাংলাদেশ

৫ এপ্রিল ২০২৪ ১২:৩১ পূর্বাহ্ণ | প্রধান খবর

লণ্ডনে সিপিবি’র জনসভায় মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম

সারওয়ার-ই আলম

লণ্ডন, ৪ এপ্রিল: বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)-এর প্রাক্তন সভাপতি ও বর্তমান সদস্য মুক্তিযোদ্ধা মুজাহিদুল ইসলাম সেলিম বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধের স্বপ্ন ও সম্ভাবনাকে পদদলিত করে উল্টো পথে চলছে বাংলাদেশ। আওয়ামী লীগ ও বিএনপির শ্রেণি চরিত্রে আজ আর মৌলিক কোনো পার্থক্য নেই। দুটি দলই আজ লুটেরা ও ধনিক শ্রেণির দলে পরিণত হয়েছে। তিনি গত পহেলা এপ্রিল সোমবার লণ্ডনের মাইক্রো বিজনেস সেন্টারে কমিউনিস্ট পার্টি যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত জনসভায় একথা বলেন।

দেশে বর্তমানে দ্রব্যমূল্য যেভাবে সরকারের নিয়ন্ত্রণের বাইরে গিয়ে সিণ্ডিকেটের নিয়ন্ত্রণে চলে গেছে, সে অবস্থা থেকে রক্ষা পাওয়ার স্থায়ী ও নির্ভরযোগ্য উপায় কী হতে পারে সে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, টেকসই সমাধান হলো মু্ক্ত বাজার অর্থনীতি থেকে বের হওয়া। মু্ক্ত বাজার অর্থনীতি থেকে বের হয়ে রাষ্ট্রীয় ব্যবস্থাপনায় উৎপাদন ও ক্রেতা সমবায় পদ্ধতি চালু করা। একইসঙ্গে সম্পদের বণ্টন করতে হবে ধনিক শ্রেণি থেকে দরিদ্র শ্রেণির দিকে, দরিদ্র শ্রেণি থেকে ধনিক শ্রেণির দিকে নয়। এই দুটি কাজ যতদিনে করা না যাবে ততদিনে শুধু সরকার পরিবর্তন করে অর্থনীতিতে মৌলিক কোনো পরিবর্তন আনা সম্ভব হবে না। মোদ্দা কথা হলো ‘সিস্টেম’-এ পরিবর্তন আনতে হবে। ‘সিস্টেম’-এ পরিবর্তন না আনলে জনগণের কাঙ্খিত মুক্তি কখনোই অর্জিত হবে না। ধনিক শ্রেণি আরও ধনি হবে, দরিদ্র শ্রেণি আরও দরিদ্র হবে।

আওয়ামী লীগ ও বিএনপির সমালোচনা করে জনাব সেলিম বলেন, এ দুটি রাজনৈতিক দলের মধ্যে মৌলিক কোনো পার্থক্য নেই। দুটি দলই লুটেরা ও ধনিক শ্রেণির ওপর নির্ভর করে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। ক্ষমতায় থাকার জন্য তারা হেলমেট বাহিনী, হোণ্ডা বাহিনী, গুণ্ডা বাহিনী তৈরি করে।

তিনি আরও বলেন, আওয়ামী লীগের শ্রেণি চরিত্র একেবারে বদলে গেছে। একটা সময় ছিল যখন এই দলটি ছিল মধ্যবিত্ত শ্রেণির দল। আর এখন দলটির নেতৃত্ব কোটিপতিদের দখলে। আওয়ামী লীগ আজ ধনিক শ্রেণির দলে পরিণত হয়েছে।

জনাব সেলিম বলেন, বাংলাদেশে আজ সবচেয়ে লাভজনক ব্যবসা হলো মন্ত্রীগিরি, এমপিগিরির ব্যবসা। গত পাঁচ বছরে আওয়ামী লীগের মন্ত্রী, এমপিদের অনেকেরই সম্পদের পরিমাণ কমপক্ষে পঞ্চাশ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। সরকারী হিসেবে গত ১৬ বছরে দেশ থেকে পাচার হয়েছে ১১ লক্ষ কোটি টাকা। এই টাকা শ্রমিকদের হাতে গেলে তারা বিদেশে পাচার করত না, দেশে বিনিয়োগ করত।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগ ও বিএনপি সরকারের মধ্যে একটা চরিত্রগত মিল হলো তারা তারা উন্নয়নের গল্প শুনিয়ে মানুষকে ভুলিয়ে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী করতে চায়। কিন্তু ইতিহাস বলে এভাবে ক্ষমতা দীর্ঘস্থায়ী হয় না। আইয়ুব খানও উন্নয়নের গল্প শুনিয়ে ক্ষমতায় থাকতে চেয়েছিলেন। এরশাদও একই কাজ করেছেন। তারা কেউই থাকতে পারেননি।

জনাব সেলিম আরও বলেন, আওয়ামীলীগ আজ রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে ক্ষমতায় টিকে থাকার পরিকল্পনা নিয়ে এগিয়ে চলেছে। তারা বলছে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে হলে ক্ষমতায় একই দলের ধারাবাহিকতা অপরিহার্য। এভাবে তারা নিজেদের শাসনকে বৈধতা দিচ্ছে। কিন্তু ইতিহাস বলে কোনো দল রাষ্ট্রযন্ত্র ব্যবহার করে সরকারে টিকে থাকতে চাইলে সেই সরকারে ফ্যাসিজম জন্ম নিতে বাধ্য। দুর্ভাগ্যজনক হলেও সত্য যে বর্তমান বাংলাদেশে তাই হচ্ছে। ফ্যাসিজম জন্ম নিচ্ছে।

জনাব সেলিম বলেন, সরকার জনগণকে ভুলিয়ে রাখার জন্যও পদ্মা সেতুর কথা বলে, মেট্রোরেলের কথা বলে। কিন্তু তারা এটা জানে না যে নির্মাণের বিশালতা দিয়ে উন্নয়ন পরিমাপ করা যায় না। উন্নয়ন পরিমাপ করতে হয়— এই উন্নয়ন কার স্বার্থে হচ্ছে এবং কার টাকায় হচ্ছে তার মাধ্যমে।

বামপন্থী রাজনীতির ভবিষ্যত সম্পর্কে আলোচনা করতে গিয়ে জনাব সেলিম বলেন, ইদানিং একটি প্রশ্ন প্রায় শোনা যায়, তাহলো- বাম পন্থার কোনো ভবিষ্যত আছে কি না। এর জবাবে আমি বলব, বামপন্থার যদি কোনো ভবিষ্যত না থেকে থাকে তাহলে ভবিষ্যতেরও কোনো ভবিষ্যত নেই। বাম পন্থার যদি কোনো ভবিষ্যত না থেকে থাকে তাহলে বাংলাদেশের বাস্তবতায় দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্বেরও কোনো অস্তিত্ব থাকবে না।

কমিউনিস্ট পার্টি যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ কমিটির উদ্যোগে আয়োজিত এ জনসভায় সভাপতিত্ব করেন আবেদ আলী আবিদ। পার্টির যুক্তরাজ্য ইউরোপ কমিটির সহ সাধারণ সম্পাদক শাহরিয়ার বিন আলীর পরিচালনায় সভার শুরুতে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমকে ফুল দিয়ে স্বাগত জানান পার্টির যুক্তরাজ্য কমিটির সদস্য জুবের আক্তার সোহেল। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পার্টির যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ কমিটির সাধারণ সম্পাদক নিসার আহমেদ।

শুরুতে বাংলাদেশের গণতান্ত্রিক ও সমাজতান্ত্রিক আন্দোলসহ বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্তে মানব মুক্তির লড়াইয়ে নিহত হওয়ার সকল মুক্তিকামী মানুষের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

এরপর কমিউনিস্ট পার্টি অব ব্রিটেনের কো-অর্ডিনেশন কমিটির চেয়ারম্যান এবং টুডে পার্টি অফ ইরান এর নেতা নাবিদ সোমালির শুভেচ্ছা বার্তা পাঠ করেন পার্টির যুক্তরাজ্য ও ইউরোপ কমিটির সদস্য ডাক্তার সেলিম ভূঁইয়া।
শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন কমিউনিস্ট পার্টি অব ব্রিটেনের চেয়ারপারসন রুথ স্টাইলস, রেলওয়ে মেরিটাইম এবং পরিবহন ইউনিয়নের সভাপতি ও ট্রেড ইউনিয়নিস্ট আলেক্স গর্ডন। এছাড়া সভায় শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ডাক্তার রফিকুল হাসান খান জিন্নাহ, ডলি ইসলাম, ডাক্তার মোখলেসুর রহমান, বাম গণতান্ত্রিক জোট যুক্তরাজ্যের সমন্বয়ক বাবলু খন্দকার, বাংলাদেশী ওয়ারকার্স কাউন্সিল (বিডব্লিউসি’র) সহ সভাপতি জাহানারা রহমান জলি, কমিউনিস্ট পার্টির প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক আবু জাফর আহমেদের ভাই পরিবেশবাদী কর্মী ও সলিসিটর ইকবাল আহমেদ, বাসদ মার্কসবাদী যুক্তরাজ্যের অন্যতম নেতা মোস্তফা ফারুক, ফ্রেন্ডস অব ছাত্র ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক গোলাম আকবর মুক্তা, সত্যেনসেন স্কুল অফ পারফর্মিং আর্টস এর পক্ষে শেখ নুরুল ইসলাম, উদীচী শিল্পীগোষ্ঠী যুক্তরাজ্যের সাধারণ সম্পাদক জুবের আক্তার সোহেল, পার্টির সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য ইফতেখারুল হক পপলু প্রমুখ। সভায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় অ্যালামনাই অ্যাসোসিয়েশনের পক্ষ থেকে মুজাহিদুল ইসলাম সেলিমের কাছে সম্মাননা ক্রেস্ট হস্তান্তর করেন সলিসিটর ইকবাল আহমদ।

বক্তাদের অনেকের বক্তব্যে ওঠে আসে বর্তমান বৈশ্বিক বাস্তবতায় শ্রমিক শ্রেণির স্বার্থ রক্ষার তাগিদে মেহনতি মানুষের ঐক্যবদ্ধ হওয়ার প্রয়োজনীয়তার বিষয়টি। বক্তাদের অনেকে প্যালেস্টাইনে ইসরায়েলি গণহত্যার তীব্র নিন্দা করেন।

আরও খবর

বাংলাদেশীরা বলির পাঁঠা?

বাংলাদেশীরা বলির পাঁঠা?

লেবার লিডার কিয়ার স্টারমারের চরম আপত্তিকর মন্তব্যে ব্রিটেনজুড়ে কমিউনিটিতে তীব্র প্রতিক্রিয়া পত্রিকা প্রতিবেদন ♦ লণ্ডন, ০১ জুলাই: আগামী ৪ জুলাই বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন। নির্বাচনকে সামনে রেখে এমনিতেই ফিলিস্তিনের গাজা ইস্যুতে লেবার পার্টির ভূমিকা নিয়ে...

চাপে রুশনারা, নির্ভার আপসানা

চাপে রুশনারা, নির্ভার আপসানা

৪ জুলাইর নির্বাচনে মুসলিম ভোটের নির্ধারক হবে গাজা ইস্যু পত্রিকা প্রতিবেদন ♦ লণ্ডন, ১০ জুন: আগামী ৪ জুলাই অনুষ্ঠেয় পার্লামেন্ট নির্বাচনকে সামনে রেখে প্রার্থীতা দাখিল চূড়ান্ত হয়েছে। ৭ জুন চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হয়। লেবার দলীয় চার বাংলাদেশি বংশোদ্ভূত...

স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রতিবাদের মুখে গ্রেটার ম্যানচেস্টরের রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ে ঠাঁই হলো বাংলার

স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রতিবাদের মুখে গ্রেটার ম্যানচেস্টরের রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ে ঠাঁই হলো বাংলার

পত্রিকা প্রতিবেদন ♦ লণ্ডন, ২৫ মার্চ: স্থানীয় বাংলাদেশী কমিউনিটির প্রবল প্রতিবাদের মুখে রচডেল কাউন্সিল কার্যালয়ের স্বাগতবার্তায় অবশেষে বাংলা যুক্ত করা হয়েছে। অন্যান্য ভাষার সাথে বাংলায় ‘স্বাগতম’ লেখাটিও এখন সেখানে শোভা পাচ্ছে।  কাউন্সিল কার্যালয়ের...

এভারেস্ট জয়ী আকি রহমানের নতুন পর্বত-অভিযান

এভারেস্ট জয়ী আকি রহমানের নতুন পর্বত-অভিযান

বিশ্বের ১৪টি পর্বতশৃঙ্গ জয় করে বিপন্নদের জন্য সংগ্রহ করতে চান ১.৫ মিলিয়ন পাউণ্ড ইব্রাহিম খলিল ♦ লণ্ডন, ২৪ মার্চ: বিশ্বের বিপদসংকুল ১৪টি উচুঁ পর্বত আরোহণের নতুন অভিযানে নেমেছেন এভারেস্ট জয়ী আকি রহমান। এই পর্বত-অভিযানের মাধ্যমে তিনি তহবিল সংগ্রহ করতে চান ১ দশমিক ৫...

ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দেয়া মার্কিন সেনা অ্যারণ মারা গেছেন

ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দেয়া মার্কিন সেনা অ্যারণ মারা গেছেন

জীবন দিয়ে গাজায় গণহত্যার প্রতিবাদ পত্রিকা ডেস্ক ♦ লণ্ডন, ২৬ ফেব্রুয়ারি: ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি দূতাবাসের সামনে নিজের শরীরে আগুন দিয়ে দুনিয়াব্যাপী আলোড়ন তোলা মার্কিন সেনা অ্যারণ বুশনেল অবশেষে মারা গেছেন।  এর আগে গত রোববার যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটনে ইসরায়েলি...

আরও পড়ুন »

 

কিছু স্বপ্নবাজ মানুষের গড়া প্রতিষ্ঠান ‘কিডনি ফাউণ্ডেশন হাসপাতাল সিলেট’

কিছু স্বপ্নবাজ মানুষের গড়া প্রতিষ্ঠান ‘কিডনি ফাউণ্ডেশন হাসপাতাল সিলেট’

নজরুল ইসলাম বাসন ♦ বৃহত্তর সিলেটের সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্যসেবা নিয়ে খুব একটা ভাল কথা শোনা যায় না। তার কারণ হল সরকারি হাসপাতালগুলোতে রয়েছে অনিয়ম ও কর্তব্যে অবহেলা, জবাবদিহিতার অভাব। বেসরকারি হাসপাতালগুলো ব্যবসায়িক দৃষ্টিভঙ্গী নিয়ে সিলেট শহরে গড়ে উঠেছে। তাদের...

রুশনারা আলী ও আজমাল মাশরুরের পাল্টাপাল্টি

রুশনারা আলী ও আজমাল মাশরুরের পাল্টাপাল্টি

লিফলেটে মেয়রের ছবি ব্যবহারের প্রশ্নে যা বললেন আজমাল মাশরুর পত্রিকা ডেস্ক ♦ লণ্ডন, ০১ জুলাই: পূর্ব লণ্ডনের বাংলাদেশি অধ্যুষিত বেথনাল গ্রিন এণ্ড স্টেপনি আসনে এবার ভিন্নরকম এক নির্বাচনী উত্তাপ বিরাজ করছে। শুরুতে গাজা ইস্যু নিয়ে সরগরম এ আসনটি এখন লেবার নেতার বাংলাদেশিদের...

বাংলাদেশীরা বলির পাঁঠা?

বাংলাদেশীরা বলির পাঁঠা?

লেবার লিডার কিয়ার স্টারমারের চরম আপত্তিকর মন্তব্যে ব্রিটেনজুড়ে কমিউনিটিতে তীব্র প্রতিক্রিয়া পত্রিকা প্রতিবেদন ♦ লণ্ডন, ০১ জুলাই: আগামী ৪ জুলাই বৃহস্পতিবার যুক্তরাজ্যে সাধারণ নির্বাচন। নির্বাচনকে সামনে রেখে এমনিতেই ফিলিস্তিনের গাজা ইস্যুতে লেবার পার্টির ভূমিকা নিয়ে...

ভোট দিতে যাওয়ার সময় আপনার ফটো আইডি সাথে নিতে ভুলবেন না

ভোট দিতে যাওয়ার সময় আপনার ফটো আইডি সাথে নিতে ভুলবেন না

লণ্ডন, ২ জুলাই: আগামী বৃহস্পতিবার ৪ জুলাই যুক্তরাজ্যে অনুষ্ঠেয় সাধারণ নির্বাচনে আপনার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে ভোট কেন্দ্রে যাওয়ার সময় আপনার সাথে একটি স্বীকৃত ফটো আইডি নিয়ে যেতে হবে। অনুমোদিত ফটো আইডি সাথে না থাকলে আপনি ভোট দিতে সক্ষম না-ও হতে পারেন। তাই আপনার ভোট...